পদ্মাসেতু দেশের ইতিহাসে এক নতুন অধ্যায়ের নাম

  • 24 June
  • 11:00 PM

তুষার মাহমুদ, শিক্ষার্থী, বাংলা বিভাগ,জবি 24 June, 22

স্বাধীনতা পরবর্তী বাংলাদেশের শ্রেষ্ঠ অর্জনের নাম পদ্মাসেতু। বাঙালির আত্মশক্তি, আত্মমর্যাদা ও সক্ষমতার প্রতীক এই পদ্মাসেতু। বহু ঘাত-প্রতিঘাত, কণ্টকাকীর্ণ পথ ও প্রতিবন্ধকতা পারি দিয়ে শেখ হাসিনা সরকারের সাহসী পদক্ষেপ ও দৃঢ় নেতৃত্বে দেশের নিজস্ব অর্থায়নে কোটি হৃদয়ের স্বপ্নের পদ্মা সেতু আজ বাস্তব।উদ্বোধনের মাহেন্দ্রক্ষণের অপেক্ষায় প্রহর কাটছে দক্ষিণ বঙ্গসহ দেশ ও দেশের বাহিরে অবস্থানরত কোটি বাঙালির প্রাণ। ২৫শে জুন সূচনা হতে যাচ্ছে এদেশের ইতিহাসে এক নতুন অধ্যায়ের সূচনা।

দেশের এই অসামান্য অর্জনের ইতিহাস বিশ্বের যেকোনো রাষ্ট্রের জন্য দৃষ্টান্তস্বরূপ। স্বাধীন বাংলাদেশের বাংলাদেশ হয়ে উঠার পেছনের ইতিহাস যেমন প্রজন্ম থেকে প্রজন্মান্তরে ছড়িয়ে যাচ্ছে ঠিক তেমনিভাবে স্বাধীন বাংলাদেশের স্বাধীনতা পরবর্তী পদ্মাসেতু নামক একটি অসম্ভব স্বপ্নকে কীভাবে বাস্তবে রূপদান করা হয়েছে, কার নেতৃত্বে এই অসম্ভব সম্ভব হয়েছে, কেমন চড়াই-উৎরাইয়ের মধ্য দিয়ে এই বিস্তীর্ণ পথ পারি দিতে হয়েছে সেই ইতিহাসও প্রজন্ম থেকে প্রজন্ম পর্যন্ত ছড়িয়ে যাবে।

৭১-এ দেশ স্বাধীন হওয়া যেমন অসম্ভব ছিল আর সেই অসম্ভবকে সম্ভব করার জন্য যে সংঠনটি এবং যে মহান নেতা সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়েছিল সে সংগঠন ছিল বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ ও সেই মহান নেতা ছিল বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান।

একইভাবে আজকের এই পদ্মাসেতুর অসম্ভব নির্মাণের নেপথ্যে যে রাজনৈতিক দল ও যে মহীয়সী নেত্রী সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়েছে সেই রাজনৈতিক দল হচ্ছে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ ও সেই নেত্রী হচ্ছে বঙ্গবন্ধু কন্যা দেশরত্ন শেখ হাসিনা।। স্বাধীনতার ইতিহাস যেমন এদেশের একটি গৌরবোজ্জ্বল অংশ ঠিক তেমনিভাবে পদ্মাসেতুও দেশের ইতিহাসে আরেক নতুন গৌরবোজ্জ্বল অধ্যায়ের সূচনা।

পদ্মা সেতু নির্মাণে মোট খরচ করা হয় ৩০ হাজার ১৯৩ দশমিক ৩৯ কোটি টাকা। এসব খরচের মধ্যে রয়েছে সেতুর অবকাঠামো তৈরি, নদী শাসন, সংযোগ সড়ক, ভূমি অধিগ্রহণ, পুনর্বাসন ও পরিবেশ, বেতন-ভাতা ইত্যাদি। বাংলাদেশের অর্থ বিভাগের সঙ্গে সেতু বিভাগের চুক্তি অনুযায়ী, সেতু নির্মাণে ২৯ হাজার ৮৯৩ কোটি টাকা ঋণ দেয় সরকার। ১ শতাংশ সুদ হারে ৩৫ বছরের মধ্যে সেটি পরিশোধ করবে সেতু কর্তৃপক্ষ।নিজস্ব অর্থায়নে এই সুবিশাল স্থাপনা বিশ্ব দরবারে বাংলাদেশের সক্ষমতার জানান দেয় বাঙ্গালির আত্মনির্ভরশীলতার পরিচয় দেয়।