পদ্মা সেতুর উদ্বোধন উপলক্ষ্যে হাবিপ্রবিতে বর্ণিল আয়োজন

  • 25 June
  • 04:56 PM

আব্দুল্লাহ আল মুবাশ্বির, হাবিপ্রবি প্রতিনিধি 25 June, 22

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কর্তৃক বাঙালি জাতির গৌরব ও আত্মমর্যাদার প্রতীক স্বপ্নের পদ্মা সেতুর উদ্বোধন উপলক্ষ্যে বিভিন্ন কর্মসূচীর মধ্যে দিয়ে দিনটি উদযাপন করেছে হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (হাবিপ্রবি)।

এ উপলক্ষ্যে সকাল ৯ টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের সামনে স্থাপিত জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এঁর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন হাবিপ্রবির ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. এম. কামরুজ্জামান। এ সময় উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রেজারার প্রফেসর ড. বিধান চন্দ্র হালদার। পরবর্তীতে ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. এম. কামরুজ্জামান এর নেতৃতে বর্ণিল আনন্দ র‌্যালি বের করা হয়। এতে বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল স্তরের শিক্ষক, কর্মকর্তা, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ হাবিপ্রবি শাখার নেতৃবৃন্দ, সাধারণ শিক্ষার্থী ও কর্মচারীগণ অংশগ্রহণ করেন। র‌্যালিটি প্রশাসনিক ভবনের সামনে থেকে শুরু হয়ে ক্যাম্পাস ও বিশ্ববিদ্যালয়ের সামনের মহাসড়ক প্রদক্ষিণ করে অডিটোরিয়াম-১ এ এসে শেষ হয়।

এরপর অডিটোরিয়াম-১ এ প্রজেক্টরের মাধ্যমে স্বপ্নের পদ্মা সেতুর উদ্বোধনী অনুষ্ঠান সরাসরি অবলোকন করেন ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. এম. কামরুজ্জামান। এ সময় হাবিপ্রবির ট্রেজারার, বিভিন্ন অনুষদের ডিন, রেজিস্ট্রার, প্রক্টর, ছাত্র পরামর্শ ও নির্দেশনা বিভাগের পরিচালকসহ অন্যান্য শিক্ষক-কর্মকর্তা ও কর্মচারীগণ উপস্থিত ছিলেন। এর পাশাপাশি হল সুপারগণের নেতৃত্বে শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন হলেও উদ্বোধনী অনুষ্ঠান সরাসরি অবলোকন করেন শিক্ষার্থীরা।

পরবর্তীতে অডিটোরিয়াম-২ এ কর্মচারীদের জন্য “অফিস সুরক্ষা বিষয়ক প্রশিক্ষণ” কর্মশালার উদ্বোধন করেন ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. এম. কামরুজ্জামান, এতে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ট্রেজারার প্রফেসর ড. বিধান চন্দ্র হালদার। এতে সভাপতিত্ব করেন আইআরটি'র পরিচালক প্রফেসর ড. এস. এম. হারুন-উর-রশিদ, সঞ্চালনা করেন আইআরটি'র সহকারী পরিচালক প্রফেসর ড. বেগম ফাতেমা জোহরা।
কর্মশালায় ভাইস-চ্যান্সেলর বলেন, 'আজকের দিনটি বাংলাদেশের জন্য একটি বিশেষ দিন তথা দেশের জন্য মাইলফলক। কিছুক্ষণ আগেই জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এঁর সুযোগ্য কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার স্বপ্নের পদ্মা সেতু উদ্বোধন করেছেন। যতদিন পদ্মা সেতু মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়ে থাকবে ততদিন আমাদের প্রজন্ম, আমাদের পরবর্তী প্রজন্ম বা তার পরের প্রজন্মের কাছেও আজকের দিনটি স্বর্ণাক্ষরে লিখা থাকবে। পদ্মা সেতু আমাদের আত্মমর্যাদা, সক্ষমতা ও গর্বের প্রতীক। আজকের এই বিশেষ দিনে আপনাদের জন্য প্রশিক্ষণ কর্মশালার আয়োজন করা হয়েছে। যা বিশেষ গুরুত্ব বহন করে। তিনি বলেন, আপনার আমার বেতন হয় জনগণের কষ্টার্জিত ট্যাক্সের টাকায়। তাই আমাদের যার যার উপর অর্পিত দায়িত্ব সঠিকভাবে পালন করতে হবে। উপস্থিত কর্মচারীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন আপনারা আমাদের সহায়ক শক্তি, তাই আপনাদের যথাযথ ভাবে দায়িত্ব পালন করে যেতে হবে, এতে বিশ্ববিদ্যালয় এগিয়ে যাবে'।

এছাড়াও, পদ্মা সেতুর উদ্বোধন উপলক্ষ্যে বিকাল ৩ টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের অডিটোরিয়াম-১ এ আন্ত:অনুষদীয় দুর্নীতি বিরোধী বিতর্ক প্রতিযোগিতা-২০২২ এর চূড়ান্ত পর্ব অনুষ্ঠিত হয় এবং পুরস্কার বিতরণ করা হয়। বিকাল ৪ টায় পদ্মা সেতুর উদ্বোধন উপলক্ষে আয়োজিত বিশাল জনসভায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এম.পি. প্রদত্ত ভাষণ অবলোকন করা হয়। এরপর একই স্থানে বিকাল ৬ টায় মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। সকল অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন হাবিপ্রবির ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. এম. কামরুজ্জামান।