হাবিপ্রবিতে স্বশরীরে ক্লাশ শুরু হচ্ছে ২১ অক্টোবর থেকে

  • 05 Oct
  • 07:47 PM

আব্দুল্লাহ আল মুবাশ্বির, হাবিপ্রবি প্রতিনিধি 05 Oct, 21

হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (হাবিপ্রবি) ৫৮ তম একাডেমিক কাউন্সিলে ১৮ অক্টোবর থেকে হল খোলা এবং ২১ অক্টোবর থেকে স্বশরীরে ক্লাশ নেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে।

মঙ্গলবার (৫ অক্টোবর) দুপুর আড়াইটা থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিআইপি কনফারেন্স রুমে শুরু হওয়া ৫৮ তম একাডেমিক কাউন্সিলের আলোচনা সভায় এই সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে বলে জানিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ ও প্রকাশনা শাখা।

একাডেমিক কাউন্সিলরের আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন উপাচার্য অদ্যাপক ড. এম কামরুজ্জামান। এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষসহ একাডেমিক কাউন্সিলের সদস্যগণ।


সভায় শিক্ষার্থীদের স্বশরীরে ক্লাস পরীক্ষা চালু, হল খোলাসহ বিভিন্ন বিষয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়।


আলোচনা সভা শেষে সিদ্ধান্ত হয়, অনলাইন ও অফলাইন উভয় মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের ক্লাস পরীক্ষা চলমান থাকবে। এক্ষেত্রে বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০২০ ও ২০১৯ সালে ভর্তি হওয়া শিক্ষার্থী এবং তাদের সাথে রি-অ্যাড হওয়া শিক্ষার্থীদের অনলাইনে ক্লাশ পরীক্ষা চালু থাকবে। তাদের ক্ষেত্রে পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ সাপেক্ষে পরবর্তী একাডেমিক কাউন্সিল সম্পন্ন করে অফলাইনে পরীক্ষা ও ক্লাশ শুরুর ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

এছাড়া সকল মাস্টার্স এবং এমবিএ ও অনার্সের লেভেল ৪ (২০১৭ সালে ভর্তিকৃত ও তাদের সাথে রি-অ্যাড) এবং লেভেল ৩ (২০১৮ সালে ভর্তিকৃত ও তাদের সাথে রি-অ্যাড) শিক্ষার্থীদের সেমিস্টার ফাইনাল, ব্যবহারিক ক্লাস (যেগুলো হাতে কলমে প্রদর্শন প্রয়োজন) ও মিডটার্ম পরীক্ষা (আলোচনা সাপেক্ষে অনলাইন বা অফলাইনে) স্বশরীরে অনুষ্ঠিত হবে।

এছাড়াও সকল তত্ত্বীয় ক্লাস, ব্যবহারিক ক্লাস (যেগুলো হাতে কলমে প্রদর্শনের প্রয়োজন নেই) ও কুইজ পরীক্ষা যথারীতি অনলাইনে অনুষ্ঠিত হবে।

এবে প্রথমে মাস্টার্স অথবা এমবিএ ও লেভেল ৪ (২০১৭ সালে ভর্তিকৃত ও তাদের সাথে রি-অ্যাড) এবং লেভেল ৩ (২০১৮ সালে ভর্তিকৃত ও তাদের সাথে রি-অ্যাড) এর শিক্ষার্থীদের জন্য হল খুলে দেয়া হবে।

এক্ষেত্রে পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করে একাডেমিক কাউন্সিল সম্পন্ন করে পরবর্তী ব্যাচ সমূহকে পর্যায়ক্রমে হলে উঠানো হবে। হলে উঠতে হলে সংশ্লিষ্ট হলের প্রকৃত আবাসিক শিক্ষার্থী হতে হবে। হল এ প্রবেশের সময় হল কর্তৃক ইস্যুকৃত 'রেসিডেন্সিয়াল আইডি কার্ড' প্রদর্শন করতে হবে। কোভিড ১৯ ভ্যাকসিন কার্ড (কমপক্ষে ১ ডোজ নেয়ার) প্রদর্শন করতে হবে।

এছাড়াও তাজউদ্দিন আহমেদ হল ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হল আগামী ১৮/১০/২১ তারিখ, শেখ ফজিলাতুন্নেসা মুজিব হল ও ডরমেটরী ২ হল ১৯/১০/২১ তারিখ, শেখ রাসেল হল, আইভি রহমান হল ও সুফিয়া কামাল হল ২০/১০/২১ তারিখ খুলে দেয়া হবে।শিক্ষার্থীদের করোনাকালীন একাডেমিক ক্ষতি পুষিয়ে নেয়ার লক্ষ্যে ৪ মাসে সেমিস্টার সম্পন্ন করার জন্য নীতিমালা সর্বসম্মতিক্রমে পাশ হয়। এছাড়াও শিক্ষার্থীদের ক্লাস আওয়ার ঠিক রেখে প্রতিটি ক্লাস ৫০ মিনিটের পরিবর্তে ৭০ মিনিট করে নেয়া হবে।