হাল্ট প্রাইজ মাভাবিপ্রবির উপদেষ্টা কমিটি ঘোষনা ও প্রথম গ্রুমিং সেশন অনুষ্ঠিত

  • 13 Aug
  • 06:48 AM

নিজস্ব প্রতিনিধি 13 Aug, 20

তিনদিন ব্যাপী গ্রুমিং ও অরিয়েন্টেশন সেশনের মধ্যে বুধবার অনুষ্ঠিত হয়ে গেল হাল্ট প্রাইজ মাভাবিপ্রবি ২০২০-২১ অনক্যাম্পাস প্রোগ্রামের প্রথম সেশন। সেশনটি অনলাইন মিটিং ক্লাউড জুম এর মাধ্যমে এবং হাল্ট প্রাইজ মাভাবিপ্রবির ফেসবুক পেজে সরাসরি সম্প্রচার করা হয়। সেশনে উপস্থিত ছিলেন হাল্ট প্রাইজ বাংলাদেশের রিজিওনাল ডিরেক্টর ফাহিম শাহরিয়ার। পুরো অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন হাল্ট প্রাইজ মাভাবিপ্রবির ক্যাম্পাস ডিরেক্টর মেহনাজ জামান। তিনদিন ব্যাপী এই গ্রুমিং ও অরিয়েন্টেশন সেশনে টেকনিক্যাল সাপোর্ট দিচ্ছে Mechanic কই? এবং মিডিয়া পার্টনার ইয়ুথ নিউজ ২৪ ডট কম

তিনটি সেশনের এই গ্রুমিং এ বাকি সেশন গুলোতেও উপস্থিত থাকবেন হাল্ট প্রাইজ ফাউন্ডেশনের গুরুত্বপূর্ণ ব্যাক্তিবর্গ এবং অভিজ্ঞ শিক্ষক ও ট্রেইনাররা। প্রতিযোগীদের উৎসাহ যোগাতে প্রতিযোগীতার খুটিনাটি জানাতে তারা গ্রুমিং করবেন।

সেশনে হাল্ট প্রাইজ মাভাবিপ্রবির ব্যবস্থাপনা কমিটিকে সবার সাথে পরিচয় করিয়ে দেওয়া হয় এবং একই সাথে হাল্ট প্রাইজ মাভাবিপ্রবির ফেসবুক প্রোফাইল পিকচার ফ্রেমের উদবোধন করা হয়।

তার সাথে হাল্ট প্রাইজ মাভাবিপ্রবির উপদেষ্টাদের নাম ঘোষনা করা হয়। এবার যারা উপদেষ্টা হিসেবে রয়েছেন তারা হলেনঃ
ড. মোঃ সাইফুল্লাহ, অধ্যাপক, এনভায়রনমেন্টাল সায়েন্স এন্ড রিসোর্স ম্যানেজমেন্ট বিভাগ, মাভাবিপ্রবি।
ড. রুকসানা হক রিমি, সহযোগী অধ্যাপক, এনভায়রনমেন্টাল সায়েন্স এন্ড রিসোর্স ম্যানেজমেন্ট বিভাগ, মাভাবিপ্রবি।
নোমান হাসান, প্রভাষক, ব্যবসা প্রশাসন বিভাগ, মাভাবিপ্রবি।
নিতেশ কুমার কুন্ড, সহকারী অধ্যাপক, ফার্মেসী বিভাগ, মাভাবিপ্রবি।
মোঃ আওরঙ্গজেব আকন্দ, সহকারী অধ্যাপক, ক্রিমিনোলজী এন্ড পুলিশ সায়েন্স বিভাগ, মাভাবিপ্রবি।
সুব্রত ব্যানার্জী, সহকারী অধ্যাপক, ক্রিমিনোলজী এন্ড পুলিশ সায়েন্স বিভাগ, মাভাবিপ্রবি।

প্রতিবার আলাদা আলাদা বিষয় কে ভিত্তি করে আয়োজন করা হয় হাল্ট প্রাইজ প্রতিযোগীতা। যেখানে প্রতিটি দলকে একটি করে চ্যালেঞ্জের ওপর আইডিয়া জমা দিতে হয়। প্রতিবার সমসাময়িক বৈশ্বিক সমস্যার ওপর ভিত্তি করে সাবেক প্রেসিডেন্ট বিল ক্লিনটন নির্ণয় করেন সে বছরের চ্যালেঞ্জ। বিশ্বব্যাপী একযোগে এই আইডিয়া প্রতিযোগীতায় অংশ নেয় লাখ লাখ টিম। এরপর বিজয়ী দল অংশগ্রহণ করে রিজিওনাল সামিট ও এক্সেলারেশন পর্বে। তারপর সর্বশেষে বিজয়ী দল তার শ্রেষ্ঠ আইডিয়াটিকে একটি সফল ব্যবসায় রুপ দিতে, পুরষ্কার হিসেবে পাচ্ছে ১ মিলিয়ন ডলার পায়। গতবার মাভাবিপ্রবিতে উল্লেখযোগ্য হারে অনক্যাম্পাস প্রোগ্রামে অংশ নিয়েছিল মাভাবিপ্রবির সাধারণ শিক্ষার্থীরা এবং মাভাবিপ্রবি থেকে বিজয়ী দল অংশ নেয় রিজিওনাল সামিটে।