হাবিপ্রবিতে চুরি করতে এসে আটক হলো এক চোর

  • 25 Apr
  • 02:13 PM

আব্দুল্লাহ আল মুবাশ্বির, হাবিপ্রবি প্রতিনিধি 25 Apr, 21

হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (হাবিপ্রবি) চুরি করতে এসে আটক হয়েছে এক চোর। বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর প্রফেসর ড. মোহাম্মদ খালিদ হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। পরে দিনাজপুর কোতয়ালী থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে চোরকে গ্রফতার করে জেল হাজতে প্রেরণ করে।

জানা যায়, শুক্রবার (২৩ এপ্রিল) আনুমানিক দুপুর দু'টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের দক্ষিণ দিকের বাউন্ডারি ওয়ালের লোহার তাঁরকাটা কাটতে গিয়ে নিরাপত্তা কর্মীর হাতে আটক হন ঐ চোর। এ ব্যাপারে বিশ্ববিদ্যালয়ের নিরাপত্তা অফিসার মাহমুদুল হাসান বলেন, সেদিন (২৩ এপ্রিল) দুপুরে ঐ চোর বাউন্ডারি ওয়ালের লোহার তাঁরকাটা কাটার সময় নিরাপত্তা কর্মীর চোখে পড়ে। পরে একজন নিরাপত্তা কর্মী আমাকে খবর দিলে আমি ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে ঐ চোরকে আটক করি। পরে প্রক্টর স্যার এসে পুলিশে খবর দিলে পুলিশ এসে চোরকে আটক করে নিয়ে যায়'।

নিরাপত্তা অফিসার মাহমুদুল হাসান আরও জানান, 'ঐ চোর এর আগেও ক্যাম্পাসে চুরি করতে এসে ধরা পড়ে এক মাস জেল হাজতে ছিলো। আমার ধারণা স্থানীয় সংঘবদ্ধ একটি চক্র দীর্ঘদিন থেকেই ক্যাম্পাসে চুরি করে আসছে। সে তাদের দলেরই একজন।

এদিকে ক্যাম্পাসে চুরির ঘটনায় আটক চোর জেল হাজতে রয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন দিনাজপুর কোতয়ালী থানার ওসি তদন্ত আসাদুজ্জামান আসাদ। তবে চোরের নাম পরিচয় জানতে চাইলে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টরের সাথে কথা বলতে বলেন ওসি।

এ ব্যাপারে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ খালিদ হোসেনের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, 'শুক্রবার দুপুরের দিকে ঐ চোর বিশ্ববিদ্যালয়ের বাউন্ডারি দেয়ালের কাঁটাতারের উপরে উঠে তাঁর কাটতে শুরু করলে বিষয়টি নিরাপত্তাকর্মীদদের নজরে আসে। এরপর তারা তাকে আটক করে। পরে আমাকে মুঠোফোনে নিরাপত্তাকর্মীরা জানালে আমি স্থানীয় পুলিশ প্রশাসনের সহায়তা নেই। এর আগেও চুরির কারণে তাকে গ্রেপ্তার করে জেলে পাঠানো হয়েছিলো। কিন্তু অল্প কিছুদিন পর পুনরায় সে জেল থেকে ছাড়া পায়। তবে ক্যাম্পাস শিক্ষার্থী শূন্য থাকায় এমন অপরাধ ঘটার সম্ভবনা কয়েক গুন বেড়ে গেছে। তবুও আমরা আমাদের সামর্থ্য অনুযায়ী চেষ্টা করছি যাতে এমন ঘটনা আর না ঘটে'।