হাবিপ্রবিতে ডেভেলপমেন্ট স্টাডিজ বিভাগের দ্বিতীয় 'ওয়েবিনার' আয়োজিত

  • 04 May
  • 04:23 AM

হাবিপ্রবি প্রতিনিধি 04 May, 20

ডেভেলপমেন্ট স্টাডিজ রিসার্চ গ্রুপের উদ্দোগে "Stories of Vulnerabilities and Resilience: Reflections by Development Studies Students" শীর্ষক এক ওয়েবিনার তথা ওয়েব সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়েছে।

রবিবার (৩ মে) বিকেল সাড়ে তিনটায় আয়োজিত ওয়েবিনারে আলোচক হিসেবে যোগ দেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ডেভেলপমেন্ট স্টাডিজ বিভাগের প্রফেসর রাশেদ আল মাহমুদ তিতুমীর, হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (হাবিপ্রবি) সহকারী অধ্যাপক মো: জুয়েল আহমেদ সরকার, ইস্ট ওয়েস্ট ইউনিভার্সিটির সিনিয়র লেকচারার রুহান ওয়াসাতা, ড্রাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির লেকচারার মো: নিয়ামত আলী ও হাবিপ্রবির ডেভেলপমেন্ট স্টাডিজ বিভাগের আরেক লেকচারার মুজাহিদুল ইসলাম। ঢাবি ও খুবি সহ বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকগণ ও ডেভেলপমেন্ট স্টাডিজ বিভাগের শিক্ষার্থীরা উক্ত ওয়েবিনারে যুক্ত হন।

সামাজিক দুরত্বের এই সময়ে দেশের উন্নয়ন অধ্যয়ন বিভাগের শিক্ষার্থীদের ভাবনা, ব্যক্তিগত মূল্যায়ন, সমস্যা ও তার প্রতিকার শীর্ষক এই ওয়েবিনারের আয়োজন বিষয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসর রাশেদ আল মাহমুদ বলেন, "শিক্ষার্থীদের ব্যক্তিগত দূরত্বের সময়টিতে নিজ গ্রাম বা অঞ্চলে কিভাবে সময় কাটাচ্ছে এবং ব্যক্তিগত উপলব্ধিগুলো সরাসরি শোনার জন্য গৎবাঁধা আলোচনার বাহিরে এসে এই ওয়েবিনার আয়োজন করা হয়েছে। প্রাথমিকভাবে আজকের ওয়েবিনারে রাজশাহী ও রংপুর অঞ্চলের ডেভেলপমেন্ট স্টাডিজ বিভাগের শিক্ষার্থীরা অংশ নেয়, পরবর্তীতে বাঁকি অঞ্চলেও এটি বিস্তৃত করা হবে"

ওয়েবিনার বিষয়ে হাবিপ্রবির ডেভেলপমেন্ট স্টাডিজ বিভাগের ছাত্র মুমিত হাসান বলেন, "করোনা কালে ছাত্রছাত্রীদের নিরাপত্তা এবং কল্যান নিয়ে শিক্ষকদের উদ্বেগ সত্যি প্রশংসনীয়। আমি ব্যক্তিগতভাবে অনেক চিন্তিত ছিলাম আমার এলাকা ও আমার নিজের মানসিক স্বাস্থ্য নিয়ে। আজকের ওয়েবিনারে আলোচকদের জ্ঞানগর্ভ আলোচনা শুনে স্বস্তি পেয়েছি। সেইসাথে দুই বিভাগের অন্যান্য ক্যাম্পাসের শিক্ষার্থীদের ভাবনা সেইসাথে স্যারদের মূল্যায়ন, করনীয়, দিকনির্দেশনা এবং সহায়ক আলোচনা ছিলো খুবই উপকারী"

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে হাবিপ্রবির ডেভেলপমেন্ট স্টাডিজ বিভাগের আলোচকেরা বলেন, 'এই জরুরী পরিস্থিতিতে প্রত্যেকে তার নিজ জায়গা থেকে তাদের দ্বায়িত্ব পালন করা খুব জরুরী। আমাদের ছাত্রছাত্রীরা কেমন আছে? তাদের কোন সমস্যা আছে কিনা এবং এই পরিস্থিতে আমরা কিভাবে তাদের সহযোগিতা করতে পারি সেটা জানা এবং সাধ্যমত সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেয়া আমাদের নৈতিক এবং মানবিক দায়িত্ব। এই লক্ষ্যে উত্তরের দুই বিভাগের শিক্ষার্থীদের এই মুহুর্তের পরিস্থিতি জানা এবং তাদের ফিজিক্যাল ও মেন্টাল সাপোর্ট দেবার জন্য এই ওয়েবিনার আয়োজন করা হয়েছে। এর পাশাপাশি শিক্ষার্থীদেরকে একাডেমিকভাবে সর্বোচ্চ সহযোগিতা দেয়া আমাদের পেশাগত দায়িত্ব। তাই পেশাগত এবং মানবিক দায়িত্বের জায়গা থেকেই আমরা এই ওয়েবিনারের আয়োজন করেছি। এছাড়াও ওয়েবিনারের মাধ্যমে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে আমাদের করণীয় বিষয়ে সচেতনতা তৈরি করাও ছিল এর অন্যতম একটি উদ্দেশ্য'।