সাবেক-বর্তমানদের সেতুবন্ধন গবিসাস আলাপন

  • 09 June
  • 01:04 PM

আব্দুল্লাহ আল মামুন, গবি প্রতিনিধি 09 June, 20

করোনায় নিস্তব্ধ পৃথিবী, সুনসান নিরবতা চারদিকে। অসুস্থ পৃথিবীতে বন্ধ সবকিছু। তিন মাস হতে চললো বন্ধ দেশের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। সাভারের গণ বিশ্ববিদ্যালয়েও প্রকৃতির যাবতীয় নিস্তব্ধতা নেমে এসেছে। ঢাকার রাজপথ দাপিয়ে বেড়াচ্ছে না লাল বাস। দীর্ঘদিন ক্যাম্পাসের টং দোকান থেকে ইথার ফেড়ে আফজাল চাচার চায়ের কাপে চামচ বাড়ি দেয়ার টুংটাং শব্দ ভেসে আসে না। বসে থাকে না বাদাম তলায় কপোত-কপোতী।

সময়টা হাশরের মাঠের মতো তাতিয়ে উঠেছে। যেন একেকটা দিন তসবির গোটা ধরে পঞ্চাশ বছর।দেয়ালে ঘড়ির কাঁটা যেন ঠায় দাড়িয়ে রয়েছে। গোটা দুনিয়ায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসে চলছে ভূতুড়ে নিরবতা। করোনা আতঙ্কে উচ্চশিক্ষার আশায় ক্যাম্পাসে আসা শিক্ষার্থীরা ফিরে গিয়েছে মায়ের আঁচলে।

এমন অলস সময়ে গৃহবন্দী মানুষের মনের খোরাক মিটাতে গণ বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতির (গবিসাস) চিন্তাচেতনার ফসল 'গবিসাস আলাপন'। ক্যাম্পাসের সাবেক বর্তমান মানুষদেরকে ভীষণভাবে প্রভাবিত করেছে ব্যতিক্রমধর্মী এই ভার্চুয়াল মিলনমেলা। ক্যাম্পাসের সব প্রিয়মুখকে এক ফ্রেমে এনে আলোচনার মাধ্যমে অলস বিকেলটাকে ভিন্নরূপে উপস্থাপিত করা হচ্ছে।

গত ১৫ মে গবিসাসের সাধারণ সম্পাদক মো. রোকনুজ্জামান মনির প্রাণবন্ত সঞ্চালনায় স্বপ্নের পথে যাত্রা শুরু করে এই আলাপন। প্রথম লাইভেই সাফল্য এসে ধরা দেয়। ব্যাপক সাড়া ফেলতে সক্ষম হয় এই আয়োজন। এরপর ধীরে ধীরে এগিয়ে চলেছে অনুষ্ঠানটি। প্রতিদিনই যেন আলাদিনের চেরাগ থেকে সাফল্য নামক দৈত্যের আবির্ভাবে ধন্য হচ্ছে গবিসাস।

দিন যত গড়াচ্ছে, চারদিকে ততই ছড়িয়ে পড়ছে গবিসাস আলাপনের সৌরভ। শুধু গুণীজনের বাহবা কুড়িয়েই ক্ষ্যান্ত হয়নি এই ভার্চুয়াল মিলনমেলা।দেশের অনেক বিশ্ববিদ্যালয়ের আনাচে-কানাচে পৌছে গেছে এর যশ-খ্যাতি। তাইতো গবিসাসের দেখাদেখি নোবিপ্রবিসাস, হাবিপ্রবিসাস, ঢাকসাস, কুবিসাস, জাবিসাস এবং সর্বশেষ জবি প্রেসক্লাব একই ধরণের আয়োজন শুরু করেছে।

দেশের শীর্ষস্থানীয় ক্যাম্পাসপাড়াতে চলছে গুঞ্জন।আলোচনা-সমালোচনার ঝড়, বাতাসে আছড়ে পড়া ঝরাপাতা উড়ে যাচ্ছে দিগ্বিদিক, নিয়ে যাচ্ছে সফলতার পয়গাম। ক্যাম্পাসগুলো গবিসাসের পথে হেটে গিয়ে সাফল্যের দেখা পাচ্ছে। এক ধাক্কায় গবিসাস আলাপন সবার আইডল হিসেবে পরিচিতি পাচ্ছে। তাইতো গর্বিত গবিসাস পরিবার, গর্বিত গণ বিশ্ববিদ্যালয়।