সাইকোলজিক্যাল থ্রিলারে অনবদ্য ফারিন

  • 07 Nov
  • 08:20 PM

মোঃ রিয়াজুস সালেকীন 07 Nov, 21

বাংলাদেশী ওটিটি প্ল্যাটফর্ম ‘চরকি’–তে গত ৫ নভেম্বর (শুক্রবার) মুক্তি পেয়েছে চল্লিশোর্ধ শর্টফিল্ম ‘তিথির অসুখ।‘

সাইকোলজিক্যাল মিস্ট্রি ঘরানার এই ফিল্মে প্রথমবারের মতো অভিনয় করেই তাক লাগিয়ে দিয়েছেন তাসনিয়া ফারিন। একদিনের ব্যবধানে ‘চরকি’ –তে ফিল্মটি ভালো সাড়া ফেলেছে।
ফিল্মের গল্প মূলত তিথি নামক এক সাধারণ মেয়েকে নিয়ে গড়ে উঠেছে, যার কিছু অদ্ভুতুতে সমস্যা আছে। তা হলো, তিথি যাকেই স্বপ্নে দেখে, তার কয়েকদিনের মধ্যে সেই মানুষের মৃত্যু ঘটে। তার স্বামী বিষয়টা নিয়ে সাইক্রিয়াটিস্টের শরণাপন্ন হয়। তিথির এমন অসুখের কারণ কি আর কেনই বা সে এমন স্বপ্ন দেখে, এই রহস্যের জট খুলতে খুলতেই কাহিনী এগিয়ে যায় এবং তিথির অবাক করা সব ঘটনা বের হতে থাকে। শেষের টুইস্টটা মাথা খারাপ করার মতো না হলেও ছিল মনে রাখার মতো।

‘তিথির অসুখ’ –এর ট্রেইলার, টিজার বের হওয়ার পর অনেকেই ভেবেছিল এটা হুমায়ূন আহমেদের গল্পে নির্মিত ‘দেবী’ সিনেমা হতে ধারণ করা হয়েছে। কিন্তু ফিল্মটি দেখার পর তাদের ধারণা পাল্টে যায়।
তিথি চরিত্রে অভিনয় করা তাসনিয়া ফারিন সাবলীল অভিনয় করেছেন।

ক্যারিয়ারের এই পর্যায়ে তার দুর্দান্ত সব কন্টেন্টে কাজ করা সত্যিই প্রশংসার দাবীদার। তিথির স্বামীর চরিত্রে ইয়াশ রোহান ভালো ছিলেন। সাইক্রিয়াটিস্টের চরিত্রে অভিনয় করা ইন্তেখাব দিনার সুন্দর অভিনয় করেছেন।

সিনেমার পরিচালক ‘ইমরাউল রাফাত’ এই থ্রিলার জনরা নিয়ে ওয়েবে এমন এক্সপেরিমেন্ট করবেন, এটা অনেকেরই ধারণার বাহিরে ছিল। সিনেমার প্রেজেন্টেশন, কালার, মিউজিক ও দৃশ্যায়নগুলো ছিল অসাধারণ। ক্যামেরায় রাজু রাজ, ইডিট কালারে সিমিত রায় অন্তর, মিউজিকে জাহিদ নিরব ও ডিজাইনে আরাফাত কীর্তি, সবাই যার যার জায়গায় সেরাটা দিয়েছেন।
বাংলাদেশী ওটিটি প্ল্যাটফর্মগুলোর মদ্ধে চরকিই প্রতি সপ্তাহে কন্টেন্ট রিলিজের মাধ্যমে একটা ধারাবাহিক নিয়ম চালু করতে সক্ষম হয়েছে। চরকির অরিজিনাল কন্টেন্টগুলোর মধ্যে ‘নেটওয়ার্কের বাইরে’, ‘ঊনলৌকিক’, ‘নীল মুকুট’, ‘আধখানা ভালো ছেলে আধা মাস্তান’ বা ‘খাঁচার ভেতর অচিন পাখি’ বেশ প্রশংসা পেয়েছে। এছাড়া মরীচিকা, ইউটিউমার বা মুন্সিগিরি নিয়েও বেশ আলোচনা হয়েছে।