নোবিপ্রবি শিক্ষার্থীর সফটওয়্যার জানাবে করোনার ভবিষ্যৎ অবস্থা

  • 22 Mar
  • 08:47 PM

এস আহমেদ ফাহিম, নোবিপ্রবি প্রতিনিধি 22 Mar, 20

বর্তমানে পুরো বিশ্বে মহামারি আকার ধারণ করেছে করোনা ভাইরাস। ভবিষ্যতে এই ভাইরাসের প্রভাবে কি অবস্থা হতে পারে তা আমাদের অজানা।কিন্তু কৃত্তিম বুদ্ধিমত্তা ব্যাপার করে করোনা ভাইরাসের ভবিষ্যৎ অবস্থা জানা সম্ভব বলে জানিয়েছেন নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় ( নোবিপ্রবি) এর ফলিত গণিত বিভাগের শিক্ষার্থী আহমেদ কাওছার এবং একই বিশ্ববিদ্যালয়ের বায়োটেকনোলজি এন্ড জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের শিক্ষার্থী এস কে ফয়সাল আহমেদ।

টুমোরো ওয়ার্ল্ড (কোভিড ১৯) নামক সফটওয়্যার ও কৃত্তিম বুদ্ধিমত্তা বিষয়ক নতুন এলগোরিদম "লার্নিং ফর টুমোরো" নিয়ে যৌথভাবে কাজ করে সফলতা পেয়েছেন তারা এবং এর সাহায্যে করোনা ভাইরাসের ভবিষ্যৎ অবস্থা সম্পর্কে জানা সম্ভব বলে জানিয়েছেন তারা।

কৃত্তিম বুদ্ধিমত্তা বিষয়ক নতুন এলগোরিদম এর কাজ সম্পর্কে আহমেদ কাওছার বলেন,বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা থেকে কোভিড ১৯ এর প্রাপ্ত প্রতিদিনের ডাটা এলগোরিদম এ স্বয়ংক্রিয়ভাবে যুক্ত হবে এবং প্রাপ্ত ডাটার উপর ভিত্তি করে এই এলগোরিদম স্বয়ংক্রিয়ভাবে নতুন ডাটা ও পূর্বের ডাটার সাথে ফাংশন তৈরি করবে যার সাহায্যে আগামী ৭-১০ দিনের করোনার অবস্থা কি হবে তা জানা যাবে। এই ফলাফল টা আমাদের পূর্ব প্রস্তুতি নিতে জন্য অনেক বেশি সাহায্য করবে। ফলে আমরা করোনা মোকাবেলা করতে সক্ষম হবো।"

এই গবেষণা সম্পর্কে আহমেদ কাওছার বলেন,আমাদের গবেষণার মূল বিষয়টি টি হচ্ছে করোনা ভাইরাস। এখন করোনা ভাইরাস এত দ্রুত হারে বাড়তেছে ভবিষ্যতে এর কি অবস্থা হবে কেউ বুঝতেছেনা। তাই ভবিষ্যতে করোনার কি অবস্থা হতে পারে কৃত্তিম বুদ্ধিমত্তার সাহায্যে তা নির্ণয়ের জন্য অর্ডিনারি মেশিন লার্নিং, ডিপ লার্নিং,স্ট্যাটিস্টিক্যাল এলগোরিদম নিয়ে গবেষণা করি কিন্ত আশানুরূপ ফলাফল পাই নি। পরবর্তীতে নতুন নন-পেরামেট্রিক স্ট্যাটিস্টিক্যাল এন্ড অনলাইন মেশিন লার্নিং এলগরিদম নিয়ে কাজ শুরু করি এবং এলগোরিদমটির নাম " লার্নিং ফর টুমোরো"। এই এলগোরিদম টি মূলত যে কাজ টি করবে তা হচ্ছে আগামি ৭-১০ দিন পর করোনার রোগীর সংখ্যা কত হতে পারে, কয়জন মানুষ মারা যেতে পারে, আর কয়জন সুস্থ হতে পারে এগুলোর ধারনা দিবে, যাতে আমরা সবাই ৭-১০ দিন আগে থেকে সচেতন হতে পারি, আর ভবিষতের জন্য করণীয় গুলো সিদ্ধান্ত নিতে পারি।