মুজিব জন্মশতবর্ষে আমাদের অঙ্গিকার!

  • 17 Mar
  • 10:13 AM

সাধারণ সম্পাদক, শেখ রাসেল জাতীয় শিশু কিশোর পরিষদ (বেরোবি) 17 Mar, 20

বাঙ্গালির প্রান-পুরুষ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বাংলার সহস্র বৎসরের অমিত তেজের ও করুনার উৎস ধারার এক যোগফল। সাহস ও সংগ্রামে দীর্ঘদেহী এই অপরুপ সুদর্শন পুরুষের মধ্যে গ্রন্থিত হয়েছে বাংলার আত্মা, করুনাময়, বীরত্ব, আত্মার আর্তি, বাংলার মানুষের সীমাহীন সাহস, বিদ্রোহ ও যুগ যুগের মুক্তিক্ষুধা এবং অপরুপ লাবন্যময়তা। বঙ্গবন্ধুর ইতিহাস সেই সর্ণগর্ভা স্বাধীনতার ইতিহাস, বঙ্গবন্ধুর ইতিহাস আমাদের আত্মপরিচয়ের ইতিহাস, আত্ম-জিজ্ঞাসার, কর্মে অধিকারের ইতিহাস এবং ভবিষ্যৎ অঙ্গীকারের ও অর্জনের এক অনুপম আলেখ্য।

আমাদের জনক আমাদের জন্য যে আদর্শ রেখে গেছেন তা বাস্তবায়ন হবে সোনার বাংলা বিনির্মাণের প্রতি একটি মাইল ফলক। অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ গড়ার যে নজির তিনি রেখে গেছেন, তা বাস্তবায়নের দায়িত্ব আমরা এড়িয়ে যেতে পারিনা। নতুন প্রজন্মের মাঝে আজকে যে রাজনৈতীক অসচেতনতা-ঘৃনা-বিদ্বেষ [I Hate Politics] আমরা দেখতে পাই তা পরিহার করতে না পারলে কখনো একটি সুন্দর বাংলাদেশ কল্পনা করা যায় না। তারুন্যের মাঝে যে ইতিহাস বিক্রিতির বোঝা চাপিয়ে দেয়া হয়েছে, এই বোঝা নিরসনের মোক্ষম সময় এটাই।

আমাদের সংবিধানের মূল যে চার নিতি (জাতীয়তাবাদ, সমাজতন্ত্র, গণতন্ত্র ও ধর্মনিরপেক্ষতা) তা বাস্তবায়নের জন্য তরুন প্রজন্মের মাঝে রাজনৈতিক সচেতনতা অসিম গুরুত্ববহ। কোনো তরুন যদি তার জন্মযুদ্ধ একাত্তর কে না জানে, যদি না জানে একাত্তর পূর্ববর্তী মুক্তি সংগ্রামের ইতিহাস, কিভাবে বাংলাদেশ নামক রাষ্ট্রের জন্ম হল; কিভাবে চার বছরের মাথায় জন্ম দেওয়া জনক কে হত্যা করে বাংলাদেশে বাস্তবায়ন করা হলো পাকিস্তানী মতবাদ, তবে সেই তরুন নিশ্চয় অবমাননা করবে তার দেশের সংবিধানের মূল চার নিতিকে।

আমাদের প্রচেষ্টাতে যদি না থাকে জনকের আদর্শ বাস্তবায়নের চিন্তা, যা বাংলার মানুষ থেকে উৎসারিত তা আরো ব্যাপৃত করা এবং পেরণা ও শক্তিতে পরিনত করা তবে আমাদের নতুন প্রজন্ম সঠিক দর্শনে সঠিক পথে বেড়ে উঠবে না। যার জন্য এই ৬১০ বর্গমাইল এর বাংলাদেশ তার দর্শন লালন ও সৃতির প্রতি শ্রদ্ধা রেখে আমাদের এই ৭৫ একরের উঠান-আমাদের ভালোবাসার আঙ্গিনা বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে "পিতা মুজিবের প্রতিকৃতি চাই"।

মুজিব জন্মশতবর্ষে এই হউক আমাদের অঙ্গিকার!