নতুন করে ভ্যাক্সিনের আওতায় পবিপ্রবির শিক্ষার্থীরা, বেড়েছে ভ্যাক্সিন নেয়ার হার

  • 22 Aug
  • 08:57 PM

পবিপ্রবি প্রতিনিধি 22 Aug, 21

করোনা সংক্রমণের ফলে ২০২০ সালের মার্চ মাস থেকে প্রায় ১৬ মাস ধরে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় শিক্ষা কার্যক্রম নিয়ে উদ্বিগ্ন শিক্ষার্থীরা। করোনা পরিস্থিতি অনুযায়ী গত বছরের মার্চ মাস থেকে দফায় দফায় বাড়ানো হচ্ছে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি।
সরকারের বর্তমান সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিবর্গ এবং শিক্ষার্থীদের টিকাগ্রহণ সম্পন্ন করে সেপ্টেম্বরে খোলা হতে পারে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। প্রথমে বিশ্ববিদ্যালয়সমূহ এবং পরে অন্যান্য শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেয়া হবে- এমনটাই জানানো হচ্ছে বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে।

বিশ্ববিদ্যালয়সমূহে শিক্ষার্থীদের ভ্যাক্সিনের আওতায় আনা হচ্ছে। এরই ধারাবাহিকতায় জরিপ অনুযায়ী পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ৭২.৫ শতাংশ শিক্ষার্থী ভ্যাক্সিনের আওতায় এসেছে।

পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ৮ টি অনুষদের মধ্যে কৃষি অনুষদে ৭১%, ব্যবসা প্রশাসন ও ব্যবস্থাপনা অনুষদে ৬৮%, কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং অনুষদে ৬৯%, এনিম্যাল সায়েন্স এন্ড ভেটেরিনারি মেডিসিন অনুষদে(ডক্টর অফ ভেটেরিনারি মেডিসিন ও এনিম্যাল হাজবেন্ড্রী) ৮০%, মৎসবিজ্ঞান অনুষদে ৭১%,পরিবেশ বিজ্ঞান ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অনুষদে ৮৬%, নিউট্রিশন ও ফুড সায়েন্স অনুষদে ৬০% এবং ল এন্ড ল্যান্ড ম্যানেজমেন্ট এডমিনিষ্ট্রেশন অনুষদে ৭৭% শিক্ষার্থীরা ভ্যাক্সিনের আওতাভুক্ত হয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয় খোলা প্রসঙ্গে জানতে চাইলে পবিপ্রবির কৃষি অনুষদের ছাত্র তুহিন বলেন, "পবিপ্রবি প্রশাসনকে প্রথমেই ধন্যবাদ জানাই রিপিট এক্সামগুলো নেয়া শুরু করার জন্য এবং সেই সাথে যেহেতু পবিপ্রবির ৭১.৫% শিক্ষার্থী ভ্যাক্সিনের আওতায় এসেছে সেহেতু কর্তৃপক্ষের কাছে আমাদের অনুরোধ রইলো আগামী মাসে বিশ্ববিদ্যালয় হল খুলে দিয়ে সেমিস্টার ফাইনাল পরীক্ষা নেয়ার জোর দাবি জানাই"।

শিক্ষার্থীদের চাওয়া বিবেচনা করে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ দ্রুত বিশ্ববিদ্যালয় খোলার যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণ করবে এমনটাই প্রত্যাশা শিক্ষার্থীদের।