ববি শিক্ষার্থীদের উপর হামলার বিচার চায় ইবি শিক্ষার্থীরা

  • 17 Feb
  • 11:08 PM

আজাহার ইসলাম, ইবি প্রতিনিধি 17 Feb, 21

বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের (ববি) শিক্ষার্থীদের উপর হামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) সাধারণ শিক্ষার্থীরা। বুধবার বিকেল সাড়ে ৪টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের মৃত্যুঞ্জয়ী মুজিব ম্যুরালের পাদদেশে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

মানববন্ধনে লোক প্রশাসন বিভাগের শিক্ষার্থী আখতার হোসেন আজাদের সঞ্চালনায় আইন বিভাগের শিক্ষার্থী রেজোয়ানুল ইসলাম, ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের শিক্ষার্থী নাজমুল হোসেন, বাংলা বিভাগের শিক্ষার্থী জিকে সাদিক, আরবি ভাষা সাহিত্য বিভাগের আব্দুর রউফ বক্তব্য রাখেন। এছাড়া তৌফিক আহমেদ, মোস্তা হাবিবুল ইসলাম, মাসুম বিল্লাহ, আলাউদ্দীন, নাহারুল, নাইম, রাহুল, মুরাদ রাশেল প্রমুখ শিক্ষার্থী উপস্থিত ছিলেন।

মানববন্ধনে শিক্ষার্থীদের হাতে ‘আমরা ইবিয়ান, পাশে আছি ববিয়ান,’ ‘বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের হামলার প্রতিবাদ জানাই’, ‘বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত কর’, ‘শিক্ষার্থী বান্ধব প্রশাসন চাই’ সহ বিভিন্ন ফেস্টুন দেখা যায়।

মানবন্ধনে বক্তারা বলেন, ‘বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের উপর পরিবহন শ্রমিকদের হামলার পর প্রশাসন এখনো কোন ব্যবস্থা গ্রহণ করেনি। নির্বিকারচিত্তে প্রশাসন বিষয়টি এড়িয়ে যাচ্ছে। রাষ্ট্র ও বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন দুটোই এ যায়গায় ব্যর্থ হয়েছে। সাধারণ শিক্ষার্থীদের তারা নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে পারেনি। রাষ্ট্রের কাছে প্রশ্ন, বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের উপর হামলা করার সাহস তারা কোথায় পাচ্ছে? পরিবহন শ্রমিকদের এই শক্তির উৎস কোথায়? ’

এসময় শিক্ষার্থীরা কঠোর আন্দোলনের হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন, ‘শুধু বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় নয়, দেশের কোন শিক্ষার্থীই জীবনের নিরাপত্তা পায়না। দেশের ভবিষ্যত কান্ডারিদের উপর এমন বর্বরোচিত হামলা মোটেই কাম্য নয়। অনতিবিলম্বে এই হামলায় জড়িতদের বিচারের আওতায় আনার দাবি জানাই। তাদের দ্রুত বিচারের আওতায় না আনলে সাধারণ শিক্ষার্থীরা তীব্র আন্দোলন গড়ে তুলবো। আর যেন কোন শিক্ষার্থীর গায়ে আঘাত না আসে এমন ব্যবস্থা রাষ্ট্র গ্রহণ করবে বলে প্রত্যাশা রাখি।’

মানববন্ধনে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র ইউনিয়ন ও ছাত্র মৈত্রী একাত্মতা পোষণ করে। এর আগে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্র মৈত্রী ও ছাত্র ইউনিয়ন ইবি সংসদ জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে বিবৃতি প্রদান করে।