গোচারণ ভূমিতে পরিণত হলো বাকৃবির খেলার মাঠ

  • 09 Feb
  • 02:10 PM

আতিকুর রহমান বাকৃবি প্রতিনিধি 09 Feb, 21

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ হয়েছে আজ প্রায় এক বছর হতে চললো। জনমানবশূন্য ক্যাম্পাসের ভবনগুলো যেনো পরিত্যক্ত ভবনে পরিণত হয়েছে। খেলাধুলায় মুখরিত থাকা মাঠগুলো এখন গবাদিপশুদের দখলে। তাদের এই অবাধ বিচরণে মাঠগুলো রূপ নিয়েছে গোচারণ ভূমিতে।

বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে (বাকৃবি) শিক্ষার্থীদের খেলাধুলার জন্য রয়েছে একটি স্টেডিয়াম ও ৫ টি খেলার মাঠ। ফাঁকা ক্যাম্পাসে গরু-ছাগলের দখলেই থাকে খেলার মাঠগুলো। গবাদিপশুর অবাধ বিচরণ দেখে যে কেউ খেলার মাঠগুলোকে গোচারণ ভূমি ভেবে ভুল করতে পারে। কখনো কখনো গবাদিপশু আবাসিক হলের ভেতরেও ঢুকে পড়ে। হলের বাগানের গাছপালা নষ্ট করা সহ বিভিন্ন সমস্যার সৃষ্টি করে বলে জানা গেছে। যত্রতত্র গবাদিপশুর বিষ্ঠা পথচারীদের যাতায়তেও সমস্যার সমষ্টি করে।

সামিউল আলম নামের এক পথচারী বলেন, প্রতিদিন এই পথ দিয়েই আমাকে অফিসে যেতে হয়। গবাদিপশুর যত্রতত্র বিষ্ঠার কারণে পথ চলতে বেশ বিড়ম্বনায় পড়তে হয়। কখনো কখনো গরুর পাল রাস্তার মাঝে দাড়িয়ে পড়ে। তখন যানবাহন চালাতেও সমস্যা হয়।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. আজহারুল হক বলেন, করোনার কারণে ক্যাম্পাস ফাঁকা থাকার জন্যই মূলত তারা সুযোগ নিয়েছে। আমি নিরাপত্তা শাখার সাথে কথা বলবো। খুব শীঘ্রই এই সমস্যার সমাধান হয়ে যাবে আশা করছি।

প্রসঙ্গত, গত বছরের ৮ মার্চ প্রথম করোনা রোগী শনাক্তের পর গত ১৭ মার্চ থেকে সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। তবে খেলার মাঠগুলো সংস্কারসহ গবাদিপশুর অবাধ বিচরণ বন্ধ চান ওই বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। বিভিন্ন সময় এ বিষয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ক্ষোভ প্রকাশ করতেও দেখা গেছে তাদের।