বাউয়েট-এর ইংরেজি বিভাগের বিভাগীয় প্রধানের দোনাগাজী পদক প্রাপ্তি

  • 25 May
  • 02:56 PM

সাফাত রহমান, বাউয়েট প্রতিনিধি 25 May, 21

চর্যাপদ সাহিত্য একাডেমি দোনাগাজী পদক ২০২০ এবং ২০২১ একসঙ্গে ঘোষণা হয়েছে। বৈশ্বিক মহামারি করোনা ভাইরাসের কারণে গত বছর এ আয়োজন বন্ধ থাকায় এবার দুই বছরের পদক একসঙ্গে দেওয়া সিদ্ধান্ত নিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। সারাদেশ থেকে বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে সর্বমোট ১২ জনের নাম ঘোষণা করা হয়। ইতোমধ্যে চর্যাপদ সাহিত্য একাডেমির মহাপরিচালক রফিকুজ্জামান রণি স্বাক্ষরিত পত্রের মাধ্যমে পদক প্রাপ্তদের বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে।

রোববার (২৩ মে) বিকেলে জুরিবোর্ডের প্রধান সমন্বয়কারী কবি শিউলী মজুমদার ও উদযাপন পরিষদের প্রধান সমন্বয়কারী জয়ন্তী ভৌমিকের যৌথ বিবৃতিতে এ পদক ঘোষণা করেন।

বাংলাদেশ আর্মি ইউনিভার্সিটি অব ইঞ্জিনিয়ারিং এন্ড টেকনোলজি (বাউয়েট)-এর ইংরেজি বিভাগের বিভাগীয় প্রধান ও বাউয়েট ল্যাংগুয়েজ এন্ড লিটারেচার ক্লাবের সভাপতি মো. হামিদুর রহমান (প্রত্যয় হামিদ) লিটল ম্যাগ সম্পাদনায় পেয়েছেন চর্যাপদ সাহিত্য একাডেমি দোনাগাজী পদক ২০২১ । এখানে উল্লেখ্য যে তিনি ইতোপূর্বে তার সাহিত্যিক মননের কারণে নানা পুরুষ্কার ও সম্মাননায় ভূষিত হয়েছেন। এর মধ্যে অন্যতম হচ্ছে: অপরাজিত লিটলম্যাগ সম্মাননা, সমকালীন সাহিত্য সম্মাননা, জীবনানন্দ সাহিত্য পুরস্কার (পশ্চিমবঙ্গ), বিশ্ববঙ্গ সাহিত্য সংসদ সম্মাননা (পশ্চিমবঙ্গ), হংসমিথুন সাহিত্য পুরস্কার, সুবচন সাহিত্য সম্মাননা, শিরোনাম সাহিত্য পরিষদ পুরস্কার, আলোঘর পাণ্ডুলিপি পুরস্কার, দেশজ জাতীয় পাণ্ডুলিপি পুরস্কার, স.ম. শামসুল আলম লেখক সম্মাননা, বাবুই শিশুসাহিত্য পাণ্ডুলিপি পুরস্কার, কবি আবুল ক্বাছিম কেশরী (কাব্য-বিনোদ) সাহিত্য পুরস্কার, দৈনিক বাঙ্গালীর কণ্ঠ লেখক পুরস্কার, অক্ষরবৃত্ত পাণ্ডুলিপি পুরস্কার ইত্যাদি।


পদকপ্রাপ্তি প্রসঙ্গে তিনি ভার্সিটি ভয়েস-কে বলেন, ‘আমার ভীষণ ভালো লাগছে। আমি মনে করি, যে কোন পুরস্কারই কাজের স্বীকৃতি। আর একটা স্বীকৃতি কাজের জন্য বড় একটা অনুপ্রেরণা; আরও বেশি, আরও ভালো কিছু করার তাগাদা। একটা পুরস্কার কেবল অতীতকেই মূল্যায়ন করে না, এটি ভবিষ্যতের জন্যও ধনাত্মক প্রভাবক হিসেবে কাজ করে। এই পুরস্কার আমার কাজকে আরও বেগবান করবে, সন্দেহ নেই। আর হ্যাঁ, আমি এটাও স্বীকার করতে চাই যে, যাঁরা লেখা দিয়ে হাইফেনকে সমৃদ্ধ করেন, যাঁরা হাইফেন নিয়মিত পাঠ করে তাকে জীবন্ত রাখেন- এই পুরস্কার তাদের সবার জন্য উৎসর্গ করতে চাই।‘

হামিদুর রহমান প্রত্যয় হামিদ নামে লেখালেখি করেন। এ পর্যন্ত তাঁর দশটি গ্রন্থ প্রকাশিত হয়েছে, যার মধ্যে আছে গল্প, কবিতা, ছড়া, শিশু-কিশোর গল্প ও অনুবাদ। তাঁর প্রকাশিত গ্রন্থসমূহ হলো: আলোময় অথৈ আঁধার, চোখের উঠান, তৃষ্ণা ও অন্যান্য, স্পর্শ ও প্রেমের পদাবলি, ফুল পাখি আর শিশু, ছড়ায় ছন্দে খেলা সারাবেলা, অন্তরালের গল্প, বুদ্ধিমান মোরগ ও বোকা কাকের গল্প, আলো দেখানো বন্ধুরা, ও দ্য ইম্পর্টেন্স অব বিইং আর্নেস্ট।