বাংলাদেশ হিউম্যান হেল্পিং সোসাইটি'র পূর্নাঙ্গ কমিটি গঠন

  • 07 Sept
  • 03:24 PM

নিজস্ব প্রতিবেদক 07 Sept, 21

সর্বদা মানব সেবায় নিয়োজিত স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন বাংলাদেশ হিউম্যান হেল্পিং সোসাইটির ২০২১-২২ কার্য বর্ষের কেন্দ্রীয় পূর্নাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে।

০৬ সেপ্টেম্বর (সোমবার) রাত ০৮ঃ০০ টায় বাংলাদেশ হিউম্যান হেল্পিং সোসাইটি'র কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী পরিষদের সভাপতি মাহমুদুল হাসান ইজাজ ও সাধারণ সম্পাদক রাফাতুল ইসলাম নাঈম কর্তৃক স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে উক্ত কমিটি ঘোষণা করা হয়।

পূর্নাঙ্গ কমিটিতে সহ-সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পেয়েছেন চবির সুস্ময়, ডি.আই.ইউ এর সিফাত। যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হিসেবে ইউ.আই.ইউ এর সাবিত, পবিপ্রবি এর আশিক। সাংগঠনিক সম্পাদক হিসেবে আছেন ঢাকা ডেন্টাল এর আফসার। অর্থ সম্পাদক হিসেবে জাবির সাইফুল। দপ্তর সম্পাদক জবির সৈকত। উপ-দপ্তর সম্পাদক ববির রাফা। প্রচার সম্পাদক ঢাবির নিদ্রা।

আন্তর্জাতিক সম্পাদক রিফাত, স্বাস্থ্য সম্পাদক অভি, শিক্ষা সম্পাদক ঢাকা কলেজের সায়েম, প্রকাশনা ও গণসংযোগ সম্পাদক জবির সৌদিপ। তথ্য ও প্রযুক্তি সম্পাদক যবিপ্রবি এর ফয়সাল। সমাজ কল্যাণ সম্পাদক জবির মিশু। কার্যনির্বাহী সদস্য নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটি'র ফাতেমা, ইস্ট ওয়েস্ট ইউনিভার্সিটি'র এর জাফরিন।

এছাড়া পরবর্তীতে সাংগঠনিক কার্যক্রম বিবেচনা করে আরো দুইজনকে কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটিতে যুক্ত করা হবে বলে জানানো হয়েছে।

উক্ত বিষয়ে মাহমুদুল হাসান ইজাজ বলেন, "বাংলাদেশ হিউম্যান হেল্পিং সোসাইটি প্রতিষ্ঠা লগ্ন থেকে সর্বদা মানব সেবায় কর্মসূচি বাস্তবায়ন করে আসছে। আমার ওপর যে দায়িত্ব অর্পিত হয়েছে সে দায়িত্ব যথাযথভাবে পালনের মাধ্যমে সংগঠনকে সাফল্যের দ্বারপ্রান্তে পৌঁছে নিতে যথাসাধ্য প্রচেষ্টা অব্যাহত রাখবো।"

তিনি আরো বলেন, 'মানব সেবায় নিজেকে আত্মনিয়োগ করায় যে মানসিক প্রশান্তি মিলে তা অন্য কোথাও পাওয়া যায় না, করোনা মহামারীতে আমরা তা বারংবার অনুভব করতে পেরেছি। সবাইকে মানবতার সেবায় এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।'

রাফাতুল ইসলাম নাঈম বলেন, "মানব সেবা মূলক কার্যক্রমই আমাদের মূল লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য। এই সংগঠন এর মাধ্যমে সেই লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য বাস্তবায়নে সর্বদা নিয়োজিত আছি। বিগত সময়ে আমরা সর্বদা মানুষের সেবায় নিয়োজিত থেকেছি, ইনশাআল্লাহ ভবিষ্যতেও আমাদের এই কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।"

প্রসঙ্গত, বাংলাদেশ হিউম্যান হেল্পিং সোসাইটি ২০১৩ সালের ০১লা মে প্রতিষ্ঠা লাভ করে। বর্তমানে বাংলাদেশের বিভিন্ন জেলা, বিশ্ববিদ্যালয় ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে তাদের কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে।