পিত্তথলিতে পাথর, বাঁচতে চায় ইবি ছাত্রী মুনিফা

  • 01 June
  • 02:25 PM

আজাহার ইসলাম, ইবি প্রতিনিধি 01 June, 21

বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ, টিউশনিও নেই। সারাদিন ঘরে শুয়েই দিন কাটে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) ইংরেজি বিভাগের ২০১৪-১৫ শিক্ষাবর্ষের ছাত্রী মুনিফার। সম্প্রতি মুনিফার পিত্তথলিতে পাথর ধরা পড়েছে। দ্রুত অপারেশন না করলে ক্যানসারে রূপ নিতে পারে বলে জানিয়েছেন কর্তব্যরত চিকিৎসকেরা।

অভাবী সংসারে পড়াশোনার পাশাপাশি টিউশনি করে পরিবারের দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন মুনিফা। ইচ্ছে ছিল বিশ্ববিদ্যালয় থেকে গ্র্যাজুয়েশন করে বিসিএস ক্যাডার (ফরেইন) হওয়ার। সমাজের মানুষের জন্য কিছু করার। কিন্তু কে জানত ওর ভাগ্যের এই নির্মম পরিহাস হবে! যশোরের ষষ্টিতলায় রেলরোডে তার বাড়ি। মুনিফার অভিভাবকও মারাত্মক রোগগ্রস্থ। রোগের বোঝা নিয়েই তবুও কষ্ট করে কোনরকম সংসার চালাচ্ছেন তার মা।

বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির পর প্রথমবর্ষ শেষ হতে না হতেই তার শরীরে নানা রোগ দেখা দেয়। এলার্জিজনিত অ্যাজমা, শ্বাসকষ্ট, গ্যাস্ট্রিক ও লিভারে আলসার রোগে দীর্ঘদিন যাবত ভুগছেন তিনি। এছাড়া খাদ্যনালী সরু হওয়া, হার্টের সিস্টোলিক ডিসফাংশন, পলিসিস্টিক ওভারিয়ান সিন্ড্রোরামেও ভুগছেন তিনি। এসব রোগের কারণে তিনি ঠিকমতো বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্লাস-পরীক্ষায় অংশ নিতে পারেননি। অধিকাংশ সময় বাড়িতে শয্যাশায়ী অবস্থায় দিন কেটেছে তার। এসব রোগের চিকিৎসায় তার অভাবী পরিবারের লক্ষাধিক টাকা খরচ হয়েছে। বর্তমানে তারা রিক্ত ও নিঃস্ব অবস্থায় মানবেতর জীবনযাপন করছেন।

মুনিফা বর্তমানে কিডনি ও ইউরিনারির জটিল সমস্যায় ভুগছেন। যা অর্থাভাবে সঠিকভাবে ডায়াগনোসিস সম্ভব হচ্ছে না। সম্প্রতি আল্ট্রাসনোতে তার পিত্তথলিতে পাথর ধরা পড়েছে। ছোট ছোট পাথরে পিত্তথলি ভরে উঠেছে। চিকিৎসক বলেছেন দ্রুত অপারেশন না করলে ক্যান্সারে রূপ নিতে পারে। এমতাবস্থায় অপারেশনসহ অন্যান্য রোগের চিকিৎসা খরচ ও নিয়মিত ওষুধ সেবন বাবদ অনেক টাকা প্রয়োজন।

মুনিফা বলেন, ‘চিকিৎসক বলেছেন অপারেশন করাতে হলে অন্যরোগের চিকিৎসা আগে প্রয়োজন। কিডনিতে ব্যথা, ইউরিনারিসহ অন্যান্য রোগ কিছুটা উপশম হলে অপারেশন করানো যাবে। আমার এ অভাবী পরিবারের পক্ষে এতো চিকিৎসা ব্যয় বহন করা অসম্ভব। সমাজের বিত্তবানরা এগিয়ে আসলে হয়তো আমি, আমার পরিবার আবার নতুন জীবন ফিরে পাব।'

মুনিফাকে সাহায্য পাঠাতে- ০২২১২১০০২০৪৬১৮ (কানিজ মুনিফা আকতারি)
এক্সিম ব্যাংক-নিজস্ব অ্যাকাউন্ট ০১৯৩৪৮১৯৮৩০ (বিকাশ/নগদ), ০১৯২৭১৬৯৪৫৩ (বিকাশ)

বিদেশ থেকে সাহায্য পাঠাতে- এক্সিম ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেড, অ্যাকাউন্ট নম্বর: ০২২১২১০০২০৪৬১৮, অ্যাকাউন্টের নাম: Kanij Munifa Aktari
ব্রাঞ্চ: যশোর, ব্রাঞ্চ কোড: ০২২, SWIFT code: EXBKBDDH, রুটিন নাম্বার : ১০০৪১০৯৪৫