পবিপ্রবির পরিবেশ বিজ্ঞান ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অনুষদের ১ যুগ পূর্তি আজ

  • 23 Aug
  • 06:23 PM

পবিপ্রবি প্রতিনিধি 23 Aug, 21

বাংলাদেশের দক্ষিণ -পশ্চিমবঙ্গের সর্বোচ্চ বিদ্যাপীঠ পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়। ২০০০ সালের ৮ জুলাই পটুয়াখালী কৃষি কলেজের অবকাঠামোতেই পবিপ্রবির ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের তৎকালীন এবং বর্তমান মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। যার মাধ্যমেই পবিপ্রবির পথ চলা শুরু হয়। বর্তমানে পবিপ্রবির আটটি অনুষদের মধ্যে পরিবেশ বিজ্ঞান ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অনুষদের এক যুগ পূর্তি আজ।

বাংলাদেশ দুর্যোগপ্রবণ দেশ হওয়ায়, বিভিন্ন সময়ে সংঘটিত দুর্যোগের কারণ, প্রকার, প্রশমণ এবং মানুষের দুর্দশা পবিপ্রবি পরিবারের মনে নাড়া দিয়েছিল। ২০০৭ সালের ১৫ নভেম্বরে সংঘটিত "সিডর" যা মানুষের জীবনকে দুর্বিষহ করে তুলেছিল সেই থেকেই পবিপ্রবিতে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা বিভাগ খোলার উৎসাহ জাগে। শুরুতে কোনো ধরনের উপকরণ কিংবা প্রস্তুতি না থাকলেও কেবল জাতীয় ও মানবিক দায়বোধ থেকে এ বিভাগ খোলার উদ্যোগ নেয়া হয়।

২০০৮ সালের ২৩ ফেব্রুয়ারি পবিপ্রবিতে "Disaster Management in Bangladesh : Role of Education and Research " শীর্ষক একটি সেমিনারের আয়োজন করা হয় যা পবিপ্রবি পরিবারকে পরিবেশ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনায় স্নাতক শিক্ষা চালু করার জন্য উৎসাহিত করে। অতঃপর ২০০৯ সালের ২৩ আগস্ট কৃষি অনুষদের আওতায় "পরিবেশ বিজ্ঞান ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা" বিভাগ নামে ডিগ্রি প্রদানকারী বিভাগ চালু করা হয়। এবং ২০১১ সালের ২৩ আগস্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের অরগানোগ্রাম অনুযায়ী উক্ত বিভাগকে "দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা" নামক অনুষদে উন্নীত করা হয়। উক্ত অনুষদের নামে পরিবেশ বিজ্ঞান যুক্ত না থাকায় কর্মক্ষেত্রে বেশ কিছু সমস্যার সম্মুখীন হতো শিক্ষার্থীরা। শিক্ষার্থীদের ভবিষ্যতের কথা বিবেচনা করে পবিপ্রবির একাডেমিক কাউন্সিলের ৪৩ তম সভার সুপারিশে রিজেন্ট বোর্ডের ৪৫ তম সভায় উক্ত অনুষদের নাম এবং ডিগ্রির নাম পরিবর্তন করে রাখা হয় "পরিবেশ বিজ্ঞান ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা"।

পরিবেশ বিজ্ঞান ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অনুষদের এক যুগ পূর্তি উপলক্ষ্যে উক্ত অনুষদের সহকারী অধ্যাপক মোঃ তরিকুল ইসলাম নিজের অভিব্যক্তি প্রকাশ করে বলেন, "উক্ত অনুষদের একজন প্রাক্তন ছাত্র হিসেবে অনুষদের এক যুগ পূর্তিতে নিজেকে গর্বিত মনে করছি। গুণগত শিক্ষা, ক্ষুধা মুক্ত এবং প্রযুক্তিনির্ভর টেকসই ও দুর্যোগসহনশীল সমাজ গঠনে উক্ত অনুষদ কাজ করে যাবে এমনটাই প্রত্যাশা।"

করোনার প্রাদুর্ভাবের কারণে অনুষদের এক যুগ পূর্তি উপলক্ষ্যে তিনদিন ব্যাপী ভার্চুয়াল সেমিনার এবং বিভিন্ন অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে।

এভাবেই গৌরবের সাথে এগিয়ে যাক উক্ত অনুষদসহ পবিপ্রবির সকল অনুষদের পথচলা এবং সাফল্যের উচ্চ শিখরে পৌঁছে যাক পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়।