পবিপ্রবির পরিবেশ বিজ্ঞান ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অনুষদের এক যুগ পূর্তি উপলক্ষে অনলাইন আলোচনা সভা

  • 24 Aug
  • 02:28 PM

পবিপ্রবি প্রতিনিধি 24 Aug, 21

পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবেশ বিজ্ঞান ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অনুষদের এক যুগ পূর্তি উপলক্ষে গত ২৩.০৮.২১ খ্রিস্টাব্দে সন্ধ্যা ৭.৩০ ঘটিকায় এক ভার্চুয়াল আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।উক্ত আলোচনা সভায় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যসহ অন্যান্য অনেক বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যবৃন্দ,বাংলাদেশ সরকারের উচ্চ-পদস্থ কর্মকর্তাগণ এবং দেশি-বিদেশি বিশ্ববিদ্যালয়ের আমন্ত্রিত অতিথিগণ উপস্থিত ছিলেন।অনুষ্ঠানটি আয়োজন করে পিএসটিইউ ইএসডিএম ক্লাব যেখানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড.স্বদেশ চন্দ্র সামন্ত।সভাপতিত্ব করেন উক্ত অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. আহমেদ পারভেজ এবং অনুষ্ঠান সঞ্চালনার দায়িত্বে ছিলেন উক্ত অনুষদের জিইও ইনফরমেশন সায়েন্স এন্ড আর্থ অবজারভেশন বিভাগের চেয়ারম্যান এবং সহকারী অধ্যাপক মোঃ মাহমুদুল হাসান।

অনুষ্ঠানের শুরুতে ছাত্র প্রতিনিধি হিসেবে এ অনুষদের প্রথম ব্যাচের গ্রাজুয়েট এবং পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিজাস্টার রিস্ক ম্যানেজমেন্ট বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মোঃ আফজাল হোসেন বক্তব্য পেশ করেন।তিনি বলেন "পরিবেশ বিজ্ঞান ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অনুষদের শিক্ষাক্রমে সংযুক্ত তিনমাসের ইন্টার্নশিপ প্রোগ্রামে শিক্ষার্থীদের ভাতা প্রদান করা হলে তাদের শিক্ষা কার্যক্রম বেগবান হবে"।এছাড়া প্রতি বছর দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তর এবং মন্ত্রণালয় কর্তৃক আয়োজিত বিভিন্ন প্রকল্পে শিক্ষার্থীদের সম্পৃক্ত করার মাধ্যমে তাদেরকে পেশাগতভাবে অভিজ্ঞ করে তোলার আহ্বান জানান।বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে শিক্ষার্থীদের ইন্টার্নশিপ প্রোগ্রামের সুযোগ সৃষ্টির জন্য বিশ্ববিদ্যালয় এবং অনুষদের সহযোগিতা কামনা করেন এবং তিনি আরো বলেন "উপজেলা পর্যায়ে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কর্মকর্তা পদ সৃজনের মাধ্যমে এ অনুষদের গ্রাজুয়েটবৃন্দ দেশের সার্বিক উন্নয়নে অগ্রণী ভূমিকা রাখতে পারবে"।
পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিন কাউন্সিল আহ্বায়ক প্রফেসর ড. মোহাম্মদ আলী শিক্ষার্থীদের লক্ষ্য নির্ধারিত পাঠ্যক্রম এবং গবেষণায় আগ্রহ বৃদ্ধি করার জন্য তরুণ শিক্ষকদের উৎসাহিত করেন।এছাড়াও তিনি গবেষণা কার্যক্রমের জন্য বিশ্ববিদ্যালয় থেকে প্রয়োজনীয় উপকরণ সরবরাহসহ সার্বিক সহযোগিতা করার আশ্বাস দেন।

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের পরিকল্পনা শাখার উপসচিব এবং নিউক্যাস্টেল বিশ্ববিদ্যালয়,অস্ট্রেলিয়া রির্সাস ফেলো ড. এসএম যোবাইদুল কবির শিক্ষার্থীদের বর্হিবিশ্বে বিভিন্ন
গবেষণা কার্যক্রম এবং কর্মক্ষেত্রে সম্পৃক্ত হবার জন্য দক্ষ হয়ে ওঠার পরামর্শ দেন।
অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. স্বদেশ চন্দ্র সামন্ত ব্যবহারিক ক্লাস,ইন্টার্নশিপ,গবেষণা এবং শিক্ষার গুণগত মানোন্নয়ন বিষয়ে গুরুত্বারোপ করেন।তিনি বলেন "গবেষণাসহ শিক্ষার অন্যান্য গুণাবলি তথা দক্ষতা অবশ্যই বৃদ্ধি করতে হবে তবেই দেশে এবং বিদেশে শিক্ষার্থীদের কর্মসংস্থান সৃষ্টি হবে"। এছাড়া বাংলাদেশ সরকারি কর্মে পরিবেশ বিজ্ঞান ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা বিষয়ক ক্যাডার সৃষ্টি,সরকারি ও বেসরকারি পর্যায়ে বৃহৎ কর্মসংস্থান সৃষ্টির লক্ষ্যে সংশ্লিষ্টদের এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. এ.কিউ.এম মাহবুব বলেন ''পবিপ্রবি দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা বিষয়ের উপর শিক্ষা কার্যক্রমের অগ্রদূত"।যত বেশি সম্ভব শিক্ষার্থীদের এম.ফিল এবং পিএইচডি -এর সঙ্গে যুক্ত করার আহ্বান জানান।"দেশের দক্ষিণাঞ্চলে ডিজাস্টার ম্যানেজমেন্ট,কৃষক ও গ্রামীণ জীবিকায় দুর্যোগের ঝুঁকি হ্রাস ইত্যাদি বিভিন্ন প্রায়োগিক বিষয়ে শিক্ষার্থীদের পিএইচডি শুরু করা হলে তৃণমূল পর্যায়ের মানুষ দুর্যোগ,পরিবেশ এবং কৃষি সম্পর্কে ভাল ধারণা পাবে এছাড়াও শিক্ষার্থীরা গবেষণা এবং শিক্ষকতায় অবদান রাখতে পারবে।"
পবিপ্রবির পরিবেশ বিজ্ঞান ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অনুষদের প্রতিষ্ঠাকালীন ডিন প্রফেসর এ.কে.এম মোস্তফা জামান বলেন,"প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষা কার্যক্রম হিসেবে পবিপ্রবিতেই সর্বপ্রথম এই বিভাগে স্নাতক পর্যায়ে ডিগ্রি প্রদান শুরু হয়েছিল।বর্তমানে আমাদের অসংখ্য স্নাতক, স্নাতকোত্তর এবং পিএইচডি পর্যায়ের শিক্ষার্থী রয়েছে।"

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইন্সটিটিউট অব ডিজাস্টার ম্যানেজমেন্ট এন্ড ভালনেরাবিলিটি স্টাডিজ এর পরিচালক প্রফেসর ড.খন্দকার মোকাদ্দেম হোসেইন বলেন,"পরিবেশ বিজ্ঞান ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা একটি ইন্টারডিসিপ্লিনারি/মাল্টিডিসিপ্লিনারি বিষয়।
বর্তমানে দুর্যোগের সবথেকে ঝুঁকিপূর্ণ পর্যায় বায়োলজিক্যাল ডিজাস্টার মহামারি করোনার ঝুঁকিতে রয়েছি এবং অতিমাত্রায় জলাবায়ু পরিবর্তন প্রকৃতির বিপর্যয় ঘটাতে পারে।আমাদের বিশ্বব্যাপী,জাতীয় পর্যায়ে এবং অঞ্চলভেদে সকলের একসাথে কাজ করার জন্য এগিয়ে আসা উচিত।"

এছাড়া জাপান ও শ্রীলঙ্কাসহ বিভিন্ন দেশের প্রতিনিধিবৃন্দ সভায় উপস্থিত থেকে নিজেদের অভিমত ব্যক্ত করেছেন,পবিপ্রবির সার্বিক সাফল্য কামনা করেছেন এবং সকলে একযোগে কাজ করার আগ্রহ পোষন করেছেন যা পবিপ্রবির জন্য এক বড় অর্জন।
আয়োজিত অনুষ্ঠানের সভাপতি পবিপ্রবির পরিবেশ বিজ্ঞান ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অনুষদের ডিন প্রফেসর ড.আহমেদ পারভেজ সভায় উপস্থিত সকল গুণী ব্যক্তিত্বকে ধন্যবাদ জানিয়ে সমাপনী বক্তব্যে বলেন," আজকের এই প্লাটফর্মের মাধ্যমে আমাদের শিক্ষার্থীরা দেশের এবং বিদেশের অংসখ্য গুনী ব্যক্তিত্বের সাথে যুক্ত হলো যাতে করে বিভিন্ন ফোরামে তাদের দক্ষতা দৃষ্টিগোচর হয় এবং সকল স্তরেই শিক্ষার্থীদের কাজ করার সুযোগ সৃষ্টি হয়।করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে বড় পরিসরে এক যুগ পূর্তির আয়োজন করা হবে এমনটাই প্রত্যাশা"।
পবিপ্রবির উক্ত অনুষদসহ সকল অনুষদের আগামী পথচলা আরো সুদীর্ঘ হোক।পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের বিশ্বব্যাপী গৌরব ছড়িয়ে পড়ুক।