হাবিপ্রবিতে ছাত্রলীগের শীর্ষ দুই পদের জন্য ২৮৯ জন পদপ্রার্থী

  • 14 Dec
  • 11:08 AM

আব্দুল্লাহ আল মুবাশ্বির, হাবিপ্রবি প্রতিনিধি 14 Dec, 21

বাংলাদেশ ছাত্রলীগের হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (হাবিপ্রবি) শাখার নতুন কমিটি গঠনের লক্ষে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদ প্রত্যাশীদের জীবনবৃত্তান্ত জমা নেওয়া হয়েছে।

গতকাল (১৩ ডিসেম্বর ) পদ প্রত্যাশীদের কাছ থেকে জীবনবৃত্তান্ত জমা নেন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির গণশিক্ষা সম্পাদক আব্দুল্লাহ হীল বারী ও উপ-ক্রীড়া সম্পাদক মেহেদী হাসান।

জীবনবৃত্তান্ত জমা নিতে হাবিপ্রবিতে আসেন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির গণশিক্ষা সম্পাদক আব্দুল্লাহ হীল বারী ও উপ-ক্রীড়া সম্পাদক মেহেদী হাসান ৷ ‘জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু’ শ্লোগান মুখরিত ক্যাম্পাসে ফুলের মালা দিয়ে কেন্দ্রীয় নেতাদের বরণ করে নেয়া হয় তাদেরকে।

বিকেল ৫ টা থেকে সন্ধ্যা সাড়ে সাতটা পর্যন্ত কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দদের কাছে জীবনবৃত্তান্ত জমা দেন পদ প্রত্যাশী পদ প্রত্যাশী ছাত্রলীগ নেতারা। জানা যায় ২৮৯ টি জীবন বৃত্তান্ত জমা পরেছে।

বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির গণশিক্ষা সম্পাদক আব্দুল্লাহ হীল বারী বলেন, ক্যাম্পাসে ছাত্রলীগ কমিটি গঠনের ক্ষেত্রে আমরা অনেক দৃঢ়ভাবে কাজ করবো। আমরা সুষ্ঠুভাবে ২৮৯টি জীবনবৃত্তান্ত জমা নিতে সক্ষম হয়েছি। কমিটি কবে নাগাদ গঠন হতে পারে এ বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি জানান বাংলাদেশ ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর (৪ জানুয়ারি, ২০২২) আগেই তারা কমিটি গঠন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করার চেষ্টা করবেন।

বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির উপ-ক্রীড়া সম্পাদক মেহেদী হাসান বলেন, আমরা অনেক বড় একটি দায়িত্ব নিয়ে হাবিপ্রবিতে এসেছি। দীর্ঘ ১১ বছর কমিটি বিহীন থাকার পর ক্যাম্পাসে ছাত্রলীগের কমিটি হতে যাচ্ছে। এক্ষেত্রে আমরা অনেক যাচাই- বাছাই করে সেরা প্রার্থীকে নির্বাচিত করবো। তিনি আরো বলেন কোনো মাদকাসক্ত ব্যক্তি বা কোনো প্রকার মামলার সাথে জড়িত ব্যক্তিকে কমিটিতে আনা হবে না।

উল্লেখ্য, গত ২৭ নভেম্বর হাবিপ্রবি ছাত্রলীগের কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা করে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদ। এর আগে সর্বশেষ ২০১০ সালে হাবিপ্রবি শাখা ছাত্রলীগের কমিটি ঘোষিত হয়েছিলো। প্রায় একযুগ পর নতুন কমিটি আসার প্রকিয়ায় উচ্ছ্বসিত হাবিপ্রবি শাখা ছাত্রলীগের কর্মীবৃন্দ।