নিউইয়র্কের সর্বোচ্চ সম্মাননা পেল বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত ‘খুদে বিজ্ঞানী’

  • 25 Oct
  • 12:48 PM

ভার্সিটি ভয়েস ডেস্ক 25 Oct, 20

বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত খুদে বিজ্ঞানী সুবর্ণ আইজ্যাক বারীকে ‘সর্বোচ্চ সম্মাননা’ জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক অঙ্গরাজ্য।

১৭ অক্টোবর মার্কিন অঙ্গরাজ্যটির গভর্নরের পক্ষ থেকে কাজের প্রতি সম্মান জানিয়ে একটি স্বীকৃতিপত্র দেওয়া হয় ৮ বছর বয়সী সুবর্ণকে।

সুবর্ণর পরিবার বিষয়টি গণমাধ্যমকে জানিয়েছে। এ ছাড়া বাংলাদেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় তাদের অফিশিয়াল ফেসবুক অ্যাকাউন্টে সুবর্ণর ছবিসহ বিষয়টি জানায়।

জানা যায়, নিউইয়র্কের গভর্নর অ্যান্ড্রু ক্যুমো তার প্রতিনিধি দলের মাধ্যমে একটি স্বীকৃতিপত্র সুবর্ণর বাড়িতে পৌঁছে দেন। তারা তাকে গভর্নরের সঙ্গে দেখা করারও আমন্ত্রণ জানিয়েছেন।

সুবর্ণর উদ্দেশে স্বীকৃতিপত্রে গভর্নর লিখেছেন, ‘খুব অল্প বয়সেই বিশ্বে ইতিবাচক পার্থক্য তৈরি করেছেন আপনি। গণিত ও পদার্থবিজ্ঞানের মাধ্যমে, সন্ত্রাসবিরোধী ক্যাম্পেইন ও বইয়ের মাধ্যমে এ ভূমিকা রেখেছেন। আপনি বিশ্বজুড়ে চাইল্ড প্রডিজি হিসেবে পরিচিত।’

তিনি আরও লেখেন, ‘গণিত ও পদার্থবিজ্ঞানে আপনার অর্জন প্রশংসার যোগ্য। একজন বিজ্ঞানী হিসেবে বর্তমান বিশ্ব সম্পর্কে আপনার বিস্ময়কর সচেতনতা এবং বিশ্বশান্তি প্রচারে সেই সচেতনতা ব্যবহার করার ইচ্ছা আমাকে মুগ্ধ করে। নিউইয়র্কের পক্ষে আপনাকে সম্মানিত করতে পেরে আমি গর্বিত।’

২০১২ সালে নিউইয়র্কের একটি বাঙালি পরিবারে সুবর্ণর জন্ম। গণিত, পদার্থবিজ্ঞান ও রসায়নের জটিলতর সমস্যা সমাধান করে খুব অল্প বয়সেই সুনাম কুড়ায় সে। ২০১৮ সালে হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয় তাকে বিজ্ঞানী হিসেবে স্বীকৃতি দেয়। ভারতের নোবেল বিজয়ী কৈলাশ সত্যার্থী তাকে দিল্লিতে ‘গ্লোবাল চাইল্ড প্রোডিজি অ্যাওয়ার্ড’ দেন। ২০১৪ সালে নিউইয়র্ক সিটি কলেজের প্রেসিডেন্ট লিসা কোইকো সুবর্ণকে ‘আমাদের সময়ের আইনস্টাইন’ উপাধি দেন।