ধর্ষকদের সর্বোচ্চ শাস্তির দাবিতে হাবিপ্রবি শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন

  • 07 Oct
  • 10:00 PM

আব্দুল্লাহ আল মুবাশ্বির, হাবিপ্রবি প্রতিনিধি 07 Oct, 20

দেশব্যাপী ধর্ষণ ও যৌন নীপিরণের বিরুদ্ধে এবং ধর্ষকদের সর্বোচ্চ শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন করেছে হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের(হাবিপ্রবি) শিক্ষার্থীরা।

আজ বুধবার (৭ অক্টোবর) বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকের সামনে বেলা সাড়ে ১১ টায় ঢাকা-দিনাজপুর মহাসড়কে শিক্ষার্থীরা এ মানববন্ধন অংশগ্রহণ করে।

মানববন্ধনে উপস্থিত শিক্ষার্থীরা সম্প্রতি দেশেব্যাপী ধর্ষণ,গণধর্ষণসহ সকল ধরণের নারী নির্যাতনের বিরুদ্ধে তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করতে থাকেন।

এসময় "স্বাধীন এই বাংলায়, ধর্ষকের ঠাই নাই,We want Justice, ঠাঁই নাই ঠাঁই নাই, ধর্ষকের ঠাঁই নাই" সম্বলিত প্লাকার্ড উত্তোলন করে স্লোগান স্লোগানে প্রতিবাদ জানাতে থাকেন সাধারণ শিক্ষার্থীরা।

মাববন্ধনের আহ্বায়ক বিবিএ অনুষদের মোঃ মারুফ হাসান জানান,"৭১ এ যখন আমরা স্বাধীন ছিলাম না তখন আমদের মা বোনেরা হয়েছে বীরঙ্গনা। আর আজ স্বাধীনতার প্রায় ৫০ বছর পর এসেও আমার মা বোনরা ধর্ষিত। বাঙালী জাতি তার জাতকে সম্মান দিতে জানলো না। শুধু মাত্র মুজিব শতবর্ষের ধর্ষণের রিপোর্ট দেখলেও দেখা যাবে যে প্রায় শতবর্ষের ১০০ এর সাথে ৯ অথবা ১০ গুণ নারী শিশু কিংবা মহিলারা ধর্ষণের স্বীকার হয়েছে৷ আমরা ছাত্র সমাজ প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করছি। প্রধানমন্ত্রী আমাদের দেশের অভিভাবক, তিনি মমতাময়ী। আমরা চাই খুব দ্রুত সময়ের মাঝে ধর্ষণের ব্যাপারে স্পেশাল ট্রাইবুনাল গঠন করে সকল ধর্ষকদের শাস্তি নিশ্চিত করা হবে"।

এছাড়াও মানববন্ধনে উপস্থিত থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষার্থী নওরিন আনসারি জানান, "ধষর্ণের ইস্যুটা অনেক পুরনো। বছরের পর বছর পেরিয়ে যাচ্ছে এখনও কোনো ধর্ষকের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দেখলাম না। এভাবে একেরপর এক ধর্ষণ হয়েই যাচ্ছে আর ধর্ষকরা ছাড় পেয়ে যাচ্ছে। দেশে কি আইন আছে? থাকলে কেন আইনের প্রয়োগ নেই? আমি মনে করি নতুন আইন প্রণয়ন করে অতি জরুরি ভিত্তিতে শাস্তির ব্যবস্থা করা উচিত। দেশের নাগরিক হিসেবে প্রত্যেকের সামাজিক নিরাপত্তার প্রয়োজন আছে। আমরা আমাদের নিরপত্তা চাই। ধর্ষকের ফাঁসি চাই। নারীর প্রতি অত্যাচারের দৃষ্টান্তমূলক বিচার চাই।