‘ক্যারিয়ার চ্যাট’ জাবি ইএমবিএ অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের এক অন্যন্য উদ্যোগ

  • 29 June
  • 05:54 AM

জাবি প্রতিনিধি 29 June, 20

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় ইএমবিএ অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন (www.juembaaa.org) জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি অন্যতম সংগঠন। প্রায় চার হাজার প্রাক্তন এবং বর্তমান শিক্ষার্থীদের নিয়ে গঠিত এই অ্যাসোসিয়েশনটি প্রতিনিয়ত ক্যারিয়ার আড্ডা, প্রফেশনাল নেটওয়ার্ক তৈরি, দক্ষতা উন্নয়ন, সভা-সেমিনার, বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক অনুস্টানের আয়োজন করা সহ জনকল্যাণ এবং এর সদস্যদের কল্যাণে নিরলসভাবে কাজে করে যাচ্ছে। এরই ধারাবাহিকতায়, সংগঠনটি প্রতিযোগিতামূলক চাকরির-বাজারে, বিশেষ করে করোনা পরবর্তী বিশ্বে নিজেদের একজন দক্ষ কর্মী হিসেবে গড়ে তুলতে “JU EMBA Career Chat’ নামে একটি ধারাবাহিক ভার্চ্যুয়াল (ফেইসবুক লাইভ) ক্যারিয়ার বিষয়ক প্রোগ্রাম করছে। এর মাধ্যমে সংগঠনটি চাকরি প্রত্যাশী শিক্ষার্থী, নতুন কর্মক্ষেত্রে প্রবেশকারী এবং শিক্ষানবিশগণ এখান থেকে নিয়মিত ক্যারিয়ার বিষয়ক বিভিন্ন তথ্য, পরামর্শ, স্কিল ডেভেলপমেন্ট, দিক নির্দেশনা, করণীয় ইত্যাদি প্রদান করে থাকে।

সংগঠনের আহ্বায়ক মাকসুদুর রহমান বলেন, ‘প্রতিযোগিতামূলক করপোরেট দুনিয়ায় নিজেকে টিকে রাখতে হলে স্কিল ডেভেলপমেন্ট, প্রফেশনাল এবং পার্সোনাল নেটওয়ার্কিং এন্ড কমিউনিটি- সম্পৃক্ততা বিশেষ করে অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনে সম্পৃক্ত থাকার কোনো বিকল্প নেই। এ জন্যই আমরা এ উদ্যোগ গ্রহণ করেছি। ঘরে বসেই অনলাইনের মাধ্যমে আমরা সেশনভিত্তিক এ প্রোগ্রাম চালিয়ে যাচ্ছি। আর এ প্রোগ্রামে ছাত্রছাত্রীদের স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণ আমাদেরকে আশান্বিত করেছে। ’

সর্বশেষ গত ১৯ জুন অনুস্ঠিত প্রোগ্রামে উপস্থিত ছিলেন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রো ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মো. আমির হোসেন, মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক লিমিটেড এর হেড অফ রিটেইল বিসনেস মো. তৌফিকুল আলম চৌধুরী এবং জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় ইএমবিএ অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন এর আহ্বায়ক মাকসুদুর রহমান।

ড. আমির হোসেন তার আলোচনায়, বর্তমান এবং করোনা পরবর্তী দেশের এবং বিশ্ব অর্থনীতি, আইটি সেক্টরের ভূমিকা, নতুন উদ্যোক্তা সৃষ্টি, কমিউনিটি, নেটওয়ার্কিং এবং অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনে সম্পৃক্ত থাকার প্রয়োজনীয়তা সহ নানা বিষয় নিয়ে আলোচনা করেন।এছাড়াও তৌফিকুল আলম চৌধুরী ব্যাংকিং সেক্টর, নতুন উদ্যোক্তা সৃষ্টিতে ব্যাংকের নানান সহযোগিতা, চাকরি প্রত্যাশীদের করণীয় এবং কর্মক্ষেত্রে সফলতার উপায় নিয়ে আলোচনা করেন এবং ক্যারিয়ার বিষয়ক নানা প্রশ্নের উত্তর দেন। প্রোগ্রামটির সঞ্চালনা করেন অ্যাসোসিয়েশনের সহ-আহবায়ক, সাইদুর রহমান।

এক প্রশ্নের জবাবে সাইদুর রহমান বলেন, ‘কর্মক্ষেত্রে সাফল্যের জন্য নেটওয়ার্কিং, লিডারশিপ, কমিউনিকেশনসসহ সফট স্কিল ডেভেলপমেন্টের কোনো বিকল্প নেই। তাই সকলের জন্য আমাদের এই নিয়মিত আয়োজন। সেশনগুলোতে দেশের শীর্ষস্থানীয় বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের নামকরা পেশাজীবী ব্যক্তিত্ব, কর্পোরেট লিডার, সফল উদ্যোক্তাগণ উপস্থিত থেকে তাদের বৈচিত্র্যময় কর্মজীবনের নানান অভিজ্ঞতার কথা, সাফল্যের গল্প, সম্ভাবনার কথা, উদ্যোক্তা-কথন, কর্মক্ষেত্রে করণীয় ইত্যাদি বিষয় নিয়ে আলোচনা করে থাকেন। আমরা বিশ্বাস করি, আমাদের এ ক্ষুদ্র প্রয়াস কিছুটা হলেও চাকুরীরত এবং চাকুরী প্রত্যাশিদের উপকারে আসবে।’

প্রোগ্রামটি সফল এবং ক্যারিয়ার গাইডলাইন হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করার জন্য সংঘটনটির সদস্যরা (বিশেষ করে, মাসুদ রানা, রেজওয়ান, এস. এম মাসুম, মুসা, সাইদুল, রবিন, পিয়াল, নাসির, জয়ন্ত, মায়া, জ্যোতি, আনিস, মাহফুজ, হাসান ইমতিয়াজ, নাবিলা, হাসানুজ্জামান, তানিয়া, সোনিয়া, অর্ক, মেহেদী, নাসিফ, প্রিয়, রুশীল, শফিকুল, সুমন, জাহিদ, সারা, মশিউর প্রমুখ) কাজ করে যাচ্ছেন।