লায়ন্স ক্লাব ইন্টারন্যাশনালের অঙ্গ সংগঠন জবি লিও ক্লাবের নতুন কমিটির অনুমোদন

  • 21 July
  • 10:58 AM

জবি প্রতিনিধি 21 July, 20

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে লায়ন্স ইন্টারন্যাশনাল এর যুব সংগঠন লিও ক্লাবের নতুন কমিটি গঠিত হয়েছে। লিও ক্লাব অব জগন্নাথ ইউনিভার্সিটি নামের এই সংগঠনটির সভাপতি হয়েছেন ২০১৫-১৬ সেশনের শিক্ষার্থী লিও-মো.মোস্তাকিম ফারুকী এবং সাধারণ সম্পাদক হয়েছেন ২০১৮-১৯ সেশনের শিক্ষার্থী লিও মেহেরাবুল ইসলাম সৌদিপ।

সংগঠনটির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি লায়ন কাজী জিয়া উদ্দিন বাসেত, প্রাক্তন সভাপতি লিও সুজন মিয়া এবং প্রাক্তন সভাপতি লিও শিরিন শিলা নতুন এই কমিটি অনুমোদন দিয়েছেন। এর আগে ২৬ সদস্যের নতুন কমিটি চূড়ান্ত করে তা অনুমোদনের জন্য সুপারিশ করেন লিও ক্লাব অব জগন্নাথ ইউনিভার্সিটি -এর প্রধান উপদেষ্টা লায়ন স্থপতি নিখিল চন্দ্র গুহের (১ম ভাইস জেলা গভর্ণর) নিকট। এদিকে উক্ত কমিটি ঘোষণা ও লিও ক্লাব অব জগন্নাথ ইউনিভার্সিটির নিয়মিত সভা (ভার্চুয়াল) এর আয়োজন করা হয়। উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে লায়ন নজরুল ইসলাম শিকদার, পিএমজেএফ (জেলা গভর্নর ৩১৫এ১) বিশেষ অতিথি হিসেবে লায়ন ইঞ্জিনিয়ার নিখিল চন্দ্র গুহ (১ম ভাইস জেলা গভর্ণর, ৩১৫এ১), এবং লায়ন ইঞ্জিনিয়ার মোঃ মোস্তফা কামাল,এমজেএফ (এমজেএফ), উপস্থিত ছিলেন এছাড়াও লিও ক্লাব চেয়ারম্যান লায়ন কমর উদ্দিন, এ এইচ এম মহিউদ্দিন, লায়ন ডঃ এস এম এ জাফর বাদশাহ, লায়ন সুশান্ত দত্ত সহ আরও অনেকেই। এই কমিটি আগামী ২০২০-২১ সেশনে দায়িত্ব পালন করবেন।

সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক ছাড়াও সংগঠনটির পরিচালনা পর্ষদে রয়েছেন- রয়েছেন, ক্লাব কো-অর্ডিনেটর লিও জাহিদ আহমেদ, প্রোটোকল অফিসার লিও আবেদ হোসেন, পাবলিসিটি অফিসার লিও আয়েশা আক্তার আশা, পাবলিক রিলেশন অফিসার লিও লুৎফুর নাহার লিজা, সিস্টার কো-অর্ডিনেটর লিও মিথিলা দেবনাথ ঝিলিক, জয়েন্ট সেক্রেটারি (এডমিন) লিও এরিন রহমান তনু, জয়েন্ট সেক্রেটারি (প্রোজেক্ট) লিও ওমর ফারুক প্রিন্স, জয়েন্ট সেক্রেটারি (ফিন্যান্স) লিও মেহেদী হাসান, জয়েন্ট ট্রেজারার (এডমিন) লিও মুজাহিদ বিল্লাহ, জয়েন্ট ট্রেজারার (প্রোজেক্ট) লিও আরাফাত রহমান খান, জয়েন্ট ট্রেজারার (ফিন্যান্স) লিও আবদুল্লাহ সাকিব, জয়েন্টে ট্রেজারার (প্রোগ্রাম) লিও আরিয়ান রবিন সুমন, টেমার লিও গোলাম আলী খান, টেইল-টুইস্টার লিও আবু সাইদ শাওন। ক্লাব চেয়ারপারসন লিও জান্নাতুল মাওয়া শশি, লিও ফাতেমা তুজ জোহরা ইমু, লিও মিজানুর রহমান, লিও কাজী জিলান আক্তার। মেম্বার হিসেবে রয়েছেন লিও নিপুন রায়, লিও অমিত পাল, লিও রাকিবুল ইসলাম, লিও নাদিয়া হোসেন ইমা, লিও সাদিয়া নওশিন বিন্তি, লিও ফাওজিয়া আফিয়া জিনিয়া, লিও আসাদুজ্জামান সিফাত, লিও আসমা-উল-হোসনা অর্থী।

লিও ক্লাব অব জগন্নাথ ইউনিভার্সিটি -এর প্রধান উপদেষ্টা লায়ন স্থপতি নিখিল চন্দ্র গুহ বলেন, ‘প্রতিনিয়ত পরিবর্তনশীল এই পৃথিবীতে টিকে থাকতে তরুণ প্রজন্মকে শুধুমাত্র শিক্ষায় নয় উন্নত মানুষ হিসেবেও তৈরি হতে হবে। নিজেদেরকে তৈরি করতে হবে সকল পরিবর্তনকে মোকাবেলা করে শক্তভাবে ভাবে টিকে থাকার। কাজের মধ্যেই ফুটিয়ে তুলতে হবে তাদের লোকায়তিক প্রতিভা। ক্লাবটির প্রাক্তন সভাপতি লায়ন কাজী জিয়া উদ্দিন বাসেত বলেন,নিজেদেরকে পড়াশোনার পাশাপাশি মানবসেবা মূলক কাজে নিযুক্ত করতে হবে এবং নিজেদেরকে আগামীদিনের জন্য প্রস্তুত করতে লিও ক্লাব যথেষ্ট সহযোগিতা করে থাকে। উক্ত ক্লাবে যুক্ত হয়ে নিজেদের উন্নয়ন করে একজন যোগ্য ও দক্ষ মানুষ হিসেবে নিজেকে প্রস্তুত করতে হবে। উনি সবাইকে শুভেচ্ছা জানান। ক্লাবের প্রাক্তন সভাপতি ও লিও মাল্টিপল জেলার ১ম সহ-সভাপতি লিও সুজন মিয়া বলেন লিও ক্লাবের মূল বিষয়বস্তু হল নেতৃত্ব (Leadership), দক্ষতা (Experience) ও সুযোগ (Opportunity)। নেতৃত্ব দানের সুযোগ গ্রহণ করে নিজেকে গড়ে তুলতে লিও ক্লাবের জুড়ি নেই। বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ুয়া সকল ছাত্র/ছাত্রীদের লিও ক্লাবের মাধ্যমে নেতৃত্ব দানের সুযোগ থেকে শুরু করে নিজেদের ব্যক্তিক উন্নয়ন ঘটিয়ে লায়ন্স ক্লাবের অর্থায়নে অসহায় মানুষের পাশে দাড়ানো এবং নিজেদের মধ্যে মানবিক গুণাবলী বৃদ্ধি করণে লিও ক্লাব অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি প্লাটফর্ম । আশা করি লিও ক্লাব অব জগন্নাথ ইউনিভার্সিটি সবাই একসাথে দেশের কল্যাণে কাজ করবে।

সংগঠনটির সদ্য দায়িত্বপ্রাপ্ত মোস্তাকিম ফারুকী বলেন, ১৯১৭ সালে যাত্রা শুরু করা আন্তর্জাতিক সংগঠন লায়ন্স ক্লাবের সহযোগী যুব সংগঠন হিসেবে লিও ক্লাব যাত্রা শুরু করে ১৯৫৭ সালে। বাংলাদেশসহ বিশ্বের ১৪০ দেশে এই ক্লাবের কার্যক্রম রয়েছে। এমন একটি সম্মানজনক ও আন্তর্জাতিকভাবে সুপরিচিত সংগঠনের জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সভাপতি হতে পেরে আমি আনন্দিত। নেতৃত্ব, দক্ষতা, সুযোগ এই তিন লক্ষ্যকে সামনে রেখে তরুণ শিক্ষার্থীদের নিয়ে আমরা সমাজের মানুষের পাশে দাঁড়াতে চাই।

জবি ক্লাবের অন্যতম নেত্রী প্রাক্তন সভাপতি লিও শিরুন শিলা বলেন, লিও ক্লাব যেহেতু আন্তর্জাতিক সংগঠন তাই আমরা সংগঠনটিকে সেই নিয়ম-শৃঙ্খলা ও মান অনুযায়ী পরিচালনা করার চেষ্টা করব। আমরা স্বাধীন মত প্রকাশ এবং জ্ঞানচর্চার মাধ্যমে সদস্যদের আত্নউন্নয়নে কাজ করে যাব। আমাদের সেবামূলক কাজের মাধ্যবে সারা দেশে নিজেদের ভাবমূর্তি আরো বৃদ্ধি করতে সোচ্চার থাকব।

প্রসঙ্গত, লিও ক্লাব হল লায়ন্স ইন্টারন্যাশনাল এর যুব সংগঠন। লিও শব্দের অর্থ হল নেতৃত্ব, দক্ষতা,সুযোগ। লিও ক্লাব তরুনদের কে সামাজিক কর্মকান্ডের মাধ্যমে নেতৃত্ব বিকাশে সহযোগিতা করে। লিও ক্লাব লায়ন্স ক্লাবের ফান্ডের উপর নির্ভরশীল। লিও ক্লাবের মেম্বাররা লিও নামে পরিচিত হয়। তারা সমাজে স্বাস্থ্য সেবা প্রদান, দারিদ্র বিমোচন, আত্নউন্নয়ন ইত্যাদি বিষয় নিয়ে কাজ করে থাকে।