গ্লোবাল ল' থিংকার্স সোসাইটি'র ‘ঈদ উপহার’

  • 15 May
  • 08:23 AM

জাফর আহমেদ শিমুল, বিশেষ প্রতিবেদক 15 May, 21

সারা দেশের ৬৪ টি জেলার তারুণ্যোদ্দীপ্ত , উদ্যোমী শিক্ষার্থী, উদ্যোক্তা সহ দক্ষিণ এশিয়ার কিছু উল্ল্যেখযোগ্য দেশ,ইউরোপ আফ্রিকার শত-সহস্র শিক্ষার্থীদের নিয়ে একটি আধুনিক,সবুজ ও স্নিগ্ধ আলোকিত সমাজ গঠনের ব্রত নিয়ে এগিয়ে চলা সংগঠন 'গ্লোবাল ল থিংকার্স সোসাইটি' দেশের অসহায় ও সহায় সম্বলহীন মানুষের সাথে ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করে নিতে আয়োজন করে 'জিএলটিএস ঈদ উপহার'।

বৃহষ্পতিবার (১৩ই মে) দেশের বরগুনা ও পিরোজপুর জেলায় সমাজের হতদরিদ্র ও সহায় সম্বলহীন মানুষের মাঝে এ ঈদ উপহার বিতরণ করা হয়।

ঈদ মানে আনন্দ,ঈদ মানে ঈদের আনন্দ সকলের মাঝে ভাগাভাগি করে নেওয়া- এই মূল বিষয়কে ধারণ করে গ্লোবাল ল' থিংকার্স সোসাইটি বাংলাদেশ চ্যাপ্টার ১০০ পরিবারের জন্য আয়োজন করেছে "জিএলটিএস ঈদ উপহার "
সামাজিক দূরত্ব মেনে ১০০ পরিবারের জন্য এই ঈদ উপহার বিতরণ করা হয় দুটি জেলায়। জিএলটিএস এর সম্মানিত জয়েন্ট অরগানাইজিং সেক্রেটারি মাহিন মেহেরাব অনিকের নেতৃত্বে বরগুনাতে এবং বাংলাদেশ কান্ট্রি লিডার মাহির দাইয়ানের নেতৃত্বে পিরোজপুর জেলায় ঈদ সামগ্রী বিতরণ করা হয়। এ প্রোগ্রাম সফল কর‍তে সহযোগিতায় ছিলেন বাংলাদেশ পাওয়ার টিমের নাসিফ জাহাঙ্গীর, ফারদিন আহসান ইসমাম সহ উক্ত জেলাদ্বয়ের প্রতিনিধিগণ।

গ্লোবাল ল' থিংকার্স সোসাইটির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি রাওমান স্মিতা বলেন, 'এই উপহার সামগ্রী সেই সকল পরিবারের কাছে পৌঁছে দেওয়া হয়েছে যারা ঈদ মানে আনন্দ তা উপভোগ করতে পারে না। সকালে যেনো অন্তত মিষ্টি মুখ করে হাসিমুখে সবাই নামাজ আদায় করতে যেতে পারে এটাই ছিল মূল উদ্দেশ্য।" এছাড়াও এ আন্তর্জাতিক সংস্থাটির সাধারণ সম্পাদক জানান, 'আমরা ১০০ পরিবারের সাথে হয়তো আমাদের আনন্দ ভাগাভাগি করে নিতে পেরেছি কিন্তু আরও ভালো লাগতো যদি আরও বেশি মানুষের কাছে এ ঈদ উপহার নিয়ে পৌঁছাতে পারতাম।
তিনি আরও বলেন,'এ সমাজের যারা ধনী ও সামর্থবান ব্যক্তিবর্গ আছেন সবাই এভাবে একটু একটু করে এই গরীব মানুষগুলোর পাশে এগিয়ে আসলে সমাজের কোনো পরিবারই ঈদের আনন্দ ধরা ছোঁয়ার বাহিরে যাবে না। আর এভাবে সমাজের প্রতিটি শ্রেণীর মানুষের মাঝে একটি সুন্দর সেঁতুবন্ধন তৈরী করা সম্ভব।'