কয়রায় লক্ষাধিক টাকার বাঁধ নির্মাণ সামগ্রী উদ্ধার

  • 29 Dec
  • 09:35 AM

মোঃ ইকবাল হোসেন, খুলনা (কয়রা) 29 Dec, 20

বিধ্বংসী ঘূর্ণিঝড় আম্ফানের আঘাতে খুলনার কয়রা উপজেলার প্রায় ৯০ ভাগ নোনা পানিতে বিলীন হয়ে যায়। সরকারি বেসরকারি বিভিন্ন সংস্থা সহ সকলে বাঁধ নির্মাণে অক্লান্ত পরিশ্রম করে। কিন্তু কিছু অসাধু মানুষের অনিয়ম আর দুর্নীতিতে আজও তলিয়ে আছে কয়রা উপজেলার দক্ষিণ বেদকাশি।

এদিকে কয়রার ঘাটাখালীর নদী ভাঙ্গনের ফলে বন্যায় প্লাবিত হয় কয়রা সদরের অধিকাংশ গ্রাম। ঘাটাখালীর নদী ভাঙ্গনের হাত থেকে কয়রাকে রক্ষা করতে সম্প্রতি শুরু হয় সরকারি বাজেটে টেকসই বেড়িবাঁধ তৈরির কাজ। নির্মাণ কাজ চলাকালে গোপনে চলমান কাজের মালামাল আত্মসাতের খবর পাওয়া যায়

বাঁধ নির্মাণের লক্ষাধিক টাকার জিও ব্যাগ আত্মসাতের অভিযোগ ওঠে কয়রা সদরের বাসিন্দা রোকন মোল্লার বিরুদ্ধে (৪৫), পিং মৃত ইউনুস মোল্লা। বিশ্বস্থ সূত্রে জানতে পারে বেড়িবাঁধ নির্মাণে দায়িত্বধীন ঠিকাদারের ছেলে বায়জিদ। তিনি কিছু লোকজন সহ কয়রা সদর ৩নং ওয়ার্ডের গ্রাম পুলিশ শেখ আ: রাজ্জাকের উপস্থিতিতে সোমবার ( ২৮ ডিসেম্বর) বিকাল ৪ টায় রোকনের বাড়িতে তল্লাশি চালায়। এসময় রোকন মোল্লার বাড়ি থেকে ৫৬৫ টি জিও ব্যাগ ও ১ টি টিউব উদ্ধার করা হয়। যার বর্তমান বাজার মূল্য আনুমানিক ২ লক্ষাধিক টাকা।

গ্রাম পুলিশ শেখ আ: রাজ্জাক জানান, অভিযুক্ত রোকন বর্তমানে পালাতক। গ্রামের সাধারণ মানুষের ধারনা, শুধু রোকন নয় এমন ঘৃণিত কাজের সাথে জড়িত থাকতে পারে আরও কিছু রাঘব বোয়ালরা।আইনি প্রক্রিয়ার মাধ্যমে অভিযুক্তদের কঠিন শাস্তির দাবি জানান এলাকাবাসী।

এবিষয়ে কয়রা উপজেলার ইউএনও মহোদয়ের সাথে যোগাযোগ করলে তার ব্যবহৃত সরকারি মোবাইল নম্বর বন্ধ পাওয়া যায়।