কুমিল্লাতেই টিকা নেয়ার সুবিধা পেলো কুবি শিক্ষার্থীরা

  • 13 Sept
  • 06:27 PM

মাহমুদুল হাসান নয়ন, কুবি প্রতিনিধি 13 Sept, 21

পরীক্ষার জন্য দেশের নানা প্রান্ত থেকে আসা কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের (কুবি) শিক্ষার্থীদের করোনার টিকা নিতে বিশেষ সুবিধা দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কুবি প্রশাসন। শিক্ষার্থীদের যেখানেই ভ্যাকসিনের কেন্দ্র থাকুক না কেনো চাইলে কুমিল্লা সদর দক্ষিণ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে টিকা নিতে পারবে।

সোমবার (১৩ সেপ্টেম্বর) বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কুবির রেজিস্ট্রার (অতিরিক্ত দায়িত্ব) অধ্যাপক ড. মো. আবু তাহের।

জানা যায়, বিশ্ববিদ্যালয়ে বিভিন্ন বিভাগে পরীক্ষা চলছে ও বিভিন্ন ব্যাচের পরীক্ষার রুটিন প্রকাশিত হচ্ছে। দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে কুমিল্লা যাত্রা শুরু করছে শিক্ষার্থীরা। তাই করোনার ভ্যাকসিন গ্রহণের ক্ষেত্রে ভোগান্তিতে পড়তে হতো এ নিয়ে দুশ্চিন্তায় ছিল শিক্ষার্থীরা। শিক্ষার্থীদের ভোগান্তির কথা চিন্তা করে কুবি শাখা ছাত্রলীগের আবেদনের প্রেক্ষিতে কুমিল্লা সদর দক্ষিণ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে শিক্ষার্থীদের করোনার ভ্যাকসিন দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কুবি প্রশাসন।

শাখা ছাত্রলীগের সভপতি ইলিয়াস হোসেন সবুজ বলেন, টিকা নিয়ে শিক্ষার্থীদের ভোগান্তির কথা চিন্তা করে আমরা কুবি প্রশাসনের কাছে আবেদন করি যাতে কুমিল্লায় টিকা দেয়ার ব্যবস্থা করা হয়। দূর-দূরান্ত থেকে আসা শিক্ষার্থীরা চাইলে কুমিল্লা টিকা নিতে পারবে।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার (অতিরিক্ত দায়িত্ব) অধ্যাপক ড. মো. আবু তাহের বলেন, আমি সিভিল সার্জনের সাথে কথা বলেছি। যারা ভ্যাক্সিনের জন্য মেসেজ পেয়েছে তারা যেই কেন্দ্রেরই হোক, সদর দক্ষিণে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে টিকা নিতে পারবে। তবে সেক্ষেত্রে প্রতিদিন কতজন টিকা নিতে চায় তা আগেরদিন জানাতে হবে। মেসেজ পেয়েছে এমন শিক্ষার্থীরা তাদের লিস্ট রেজিস্ট্রার দপ্তরে পাঠাবে আর যাদের মেসেজ আসেনি তাদের লিস্ট পাঠাতে বলছে সিভিল সার্জন অফিসে, দ্রুত যাতে মেসেজ আসে সে ব্যবস্থা করবে।

যারা প্রথম ডোজ পেয়েছে তারা কুমিল্লায় ভ্যাকসিন নিতে পারবে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, যারা ইতোমধ্যে প্রথম ডোজ নিয়েছে তারাও এ সুবিধা পাবে। তবে যেহেতু সদর দক্ষিণে সিনোফার্ম ছাড়া অন্য কোনো ভ্যাক্সিন নাই তাই কেউ প্রথম ডোজ মডার্না বা ফাইজার দিলে দ্বিতীয় ডোজের জন্য তাদের লিস্ট আমাদের কাছে পাঠালে আমরা তাদের লিস্ট সদর হাসপাতালে পাঠাব। তাহলে ওভাবে তারা ব্যবস্থা করবে।