করোনা সচেতনতায় মানুষের দ্বারে দ্বারে ছাত্রলীগ নেতা জহির!

  • 23 Mar
  • 08:29 AM

ভার্সিটি ভয়েস ডেস্ক 23 Mar, 20

মহামারী করোনা ভাইরাসের ভয়ে যখন পুরো দেশ আতঙ্কে, দেশ যখন ক্রান্তিলগ্নে, ঠিক তখন গ্রামের অসচেতন মানুষের দ্বারে দ্বারে সচেতনতার বার্তা পৌছে দিচ্ছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী জহির। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক।
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের হল বন্ধ ঘোষণার পর নিজ এলাকায় ফিরে যান জহির। তারপর স্বেচ্ছায় হোম কোয়ারেন্টাইনে বসেন তিনি। তার এক দিন পরেই গ্রামের মানুষের মাঝে করোনা নিয়ে অসচেতনতা এবং খামখেয়ালিপনা দেখে তিনি জনসচেতনতা বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত নেন। পরে নিজ উদ্যোগে তিনি কুমিল্লার নাঙ্গলকোট উপজেলার চার ইউনিয়নে মাইকিং ও লিফলেট বিতরণ করেন।

রবিবার (২২ মার্চ) বিকাল ৩টা থেকে উপজেলার মক্রবপুর, মৌকরা, রায়কোট উত্তর, রায়কোট দক্ষিণ ও বাঙ্গড্ডা ইউনিয়নে মাইকিং করেন তিনি।
জহির বলেন, আমি মানুষের জন্য কাজ করতে পছন্দ করি। এটা আমার দায়িত্ব। গ্রামে এসে অনেক মানুষকে অসচেতন ভাবে চলাফেরা করতে দেখেছি। তাই নিজ উদ্যোগে করোনা প্রতিরোধে মানুষদেরকে নাকে ও মুখে মাস্ক পড়া, জনসমাগম থেকে দূরে থাকা, হাত মিলানো, হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহারের মাধ্যমে করোনা সম্পর্কে সচেতন হওয়ার আহ্বান জানিয়েছি। এছাড়া সরকারের নির্দেশনাগুলো মেনে চলার আহ্বান জানিয়েছি সবাইকে। সরকার করোনা প্রতিরোধে নানা উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। তা মানুষ মেনে না চললে এই করোনা বাংলাদেশেও মহামারী আকার ধারণ করতে পারে।

গ্রামবাসী বলেন, আমাদের গ্রামের মেধাবী ছাত্র জহির। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এই ছাত্র আমাদের জন্য অনেক কাজ করেছেন। আমাদের গ্রামের সন্তানদের মাঝে মাঝে ক্যাম্পেইনিং করে অনুপ্রেরণা দিয়েছেন এই জহির। এছাড়া যখনি গ্রামের মানুষগুলোর সচেতনতার প্রয়োজন হয়, তখনি গ্রামে ছুটে আসেন জহির। আমরা তার জন্য গর্ব বোধ করি।

উল্লেখ্য, গত কয়েকদিন ধরেই তিনি এলাকার মানুষের মাঝে সচেতনতার বৃদ্ধির জন্য নিজ এলাকায় কাজ করে যাচ্ছেন।