করোনা ডাক্তার ও হোম কোয়ারেন্টাইন বন্ধু হবে ‘ডাক্তার আপা’

  • 20 June
  • 11:29 AM

এস আহমেদ ফাহিম, নোবিপ্রবি প্রতিনিধি 20 June, 20

করোনাভাইরাসের মহামারীতে সংকটাপন্ন চিকিৎসা ব্যবস্থা। এই অবস্থা থেকে উত্তোরণে নোবিপ্রবি ও চুয়েটের শিক্ষার্থীরা মিলে ভিন্নধর্মী কৃত্তিম বুদ্ধিমত্তাভিত্তিক সফটওয়্যার তৈরি করেছেন যা সম্পূর্ণভাবে হোমা কোয়ারেন্টাইনে বন্ধু হিসেবে কাজ করবে এবং করোনা ডাক্তার হিসেবে কাজ করবে। কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার এই সফটওয়্যারটির নাম "ডাক্তার আপা"।

আজ (২০ জুন) এই সফটওয়্যারটির বিষয়ে জানিয়েছেন এই টিমের প্রধান ও নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (নোবিপ্রবি) এর ফলিত গণিত বিভাগের শিক্ষার্থী আহমেদ কাওছার।তিনি জানান,এই সফটওয়্যারটি তৈরিতে আরো ২জন কাজ করেছেন, তারা হলেন নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (নোবিপ্রবি) এর বিজিই বিভাগের শিক্ষার্থী এস কে ফয়সাল আহমেদ এবং চুয়েটের সিএসই বিভাগের শিক্ষার্থী অভিষেক দাশ।

সফটওয়্যারটি তৈরির বিষয়ে আহমেদ কাওছার বলেন,করোনাভাইরাসের মহামারীতে মানুষের মধ্যে করোনা আক্রান্ত হওয়া নিয়ে সংশয় দেখা দিয়েছে।যার ফলে ডাক্তাররা চিকিৎসা দিতে হিমশিম খাচ্ছে।করোনা উপসর্গ নিয়ে চিকিৎসার অভাবে মারা যাচ্ছে।এই অবস্থা থেকে উত্তোরণে আমরা গত ২ মাস ধরে ৩ হাজার করোনা আক্রান্ত রোগীর ডেটা বিশ্লেষন করে এমন একটি কৃত্তিম বুদ্ধিমত্তাভিত্তিক সফটওয়্যার বানাতে সক্ষম হয়েছি ,যার সাহায্যে ঘরে বসেই করোনাকালীন সময়ে ডাক্তারের যেকেউ জানতে পারবে করোনায় আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা, করোনা টেস্টের প্রয়োজনীয়তা আছে কিনা।

পাশাপাশি হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকা রোগীদের বন্ধু হিসেবে কাজ করবে।
এই কাজটি করার জন্য আমাদের বাংলা ভয়েস রিকোগনিশন, বাংলা ল্যাঙ্গুয়েজ প্রসেসিং, বাংলা চ্যাটবটস, মেশিন লার্নিং ক্লাসিফায়ারস, বাংলা সেন্টিমেন্ট এনালাইসিস, বাংলা টেস্ট এনালাইসিস & মডেলিং, এবং ওয়েব অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহার করা হয়েছে।

সফটওয়্যারটির কাজের বিষয়ে আহমেদ কাওছার বলেন, আমাদের সফটওয়্যারটি এমন ভাবে তৈরি করা হয়েছে যে এটি সূক্ষ থেকে সূক্ষ লক্ষনগুলোও ধরতে পারবে এবং নিজে থেকে সেগুলো বিশ্লেষন করে সিদ্ধান্ত দিতে পারবে।আমাদের ডাটা ভেলিডেশনের মাধ্যমে বুঝতে পেরেছি এটি ৯৬% সঠিকভাবে করোনার রিস্ক এনাইসিস করতে পারবে এবং এর পাশাপাশি যেহেতু এটি একটি অনলাইন কৃত্তিম বুদ্ধিমত্তার সফটওয়্যার ,তাই এটি সর্বদা নতুন রোগীদের ডেটা থেকে শিখে এবং আরও নির্ভুল কাজ করতে পারবে। আমাদের এই সফটওয়্যারটি কয়েক ধাপে কাজ করবে। এটি বাংলায় কারো সাথে সরাসরি কথা বলবে এবং করোনার বিষয়ে যে কোনও প্রশ্ন এবং তথ্য (নম্বর, পুলিশ লাইন, আপডেট তথ্য ইত্যাদি) এর উত্তর দেবে।চিকিৎসক যেভাবে কোনও রোগীকে করোনাস থাকতে পারে তাকে প্রশ্ন ও সিদ্ধান্ত দেয়, আমাদের প্রোগ্রামটি ঠিক তেমনি কাজ করবে।রোগীকে অবহিত করার সিদ্ধান্তের ভিত্তিতে, এটি একটি মেশিন লার্নিং অ্যালগরিদম ব্যবহার করে রোগীকে আনুপাতিক দৈনিক রুটিন সরবরাহ করবে। আপনি আপনার বন্ধু হিসেবে একে সব শেয়ার করতে পারবেন, আপনার জন্য সে কবিতা বলবে, গান গাইবে, জোক্স বলবে।আপনার সেন্টিমেন্ট বুঝার ট্রাই করবে আর সেই অনুযায়ী সেটি কাজ করবে। আপনার মন খারাপ হলে শান্তনা দিবে।এছাড়াও, পুনরায় করোনা পরীক্ষা করার পর, আপডেট করা তথ্য অনুযায়ী, রোগীরা তাদের রুটিন পরিবর্তনও করতে পারবে আমাদের এই ডাক্তার আপার মাধ্যমে।

আহমেদ কাওছার আরো বলেন, যথেষ্ট পরিমান আর্থিক সহযোগিতা না পাওয়ায় এবং বাংলা ভাষার ডাটার রিসোর্স না পাওয়ায়, আমাদের প্রোগ্রাম টি উত্তম ভাবে ট্রেইন করতে পারিনি, ফলে এটি সব কথার বুঝার মত ক্ষমতা হয়ে উঠেনি,যাকে আমরা বলি ন্যাচারাল ল্যাংগুয়েজ আন্ডারস্টেন্ডিং। তবে আমরা বিশ্বাস করি , সবাই যখন সেটি ব্যবহার করবে, সেটি তার নিজের ভুল থেকে শিখতে পারবে। এভাবে ডাক্তার আপা নিজেকে দক্ষ করে নিবে। আমরা বিশ্বাস করি যে এই প্রোগ্রামটি এই বর্তমান পরিস্থিতিতে একজন ডাক্তারের হেল্পিং হ্যান্ড হিসাবে কাজ করবে।

সফটওয়্যারটির লিংক: https://covid.moonpi.tech/