ইবি শিক্ষার্থীর রহস্যজনক মৃত্যু: ঝিনাইদহ পাবলিকিয়ান সংহতির ৫ দফা দাবি

  • 05 Oct
  • 05:48 PM

আজাহার ইসলাম, ইবি প্রতিনিধি 05 Oct, 20

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষার্থী উলফাত আরা তিন্নির রহস্যজনক মৃত্যুকে হত্যা দাবি করে ৫ দফা দাবি পেশ করেছে ঝিনাইদহ পাবলিকিয়ান সংহতি। সোমবার ঝিনাইদহ জেলা প্রশাসক সরোজ কুমার নাথের কাছে স্মারকলিপির মাধ্যমে এ দাবি জানায় তারা।

স্মারকলিপিতে তিন্নির রহস্যজনক ও অমানবিক হত্যাকাণ্ডের সুষ্ঠু তদন্তসহ ৫ দফা দাবি জানানো হয়েছে। দাবিসমূহ হলো- তিন্নি হত্যাকাণ্ডের সুষ্ঠু তদন্ত করা, দোষীদের অনতিবিলম্বে গ্রেপ্তার করা, অতি দ্রুত দোষীদের শাস্তি প্রদান, ভুক্তভােগী পরিবারকে আইনি সহায়তা প্রদান ও ঝিনাইদহ জেলার সার্বিক আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি উন্নতি করা।

এ বিষয়ে আঁখি আলমগীর বলেন, ‘এই হত্যাকাণ্ডের বিচারের বিষয়ে জেলা প্রশাসক আন্তরিকভাবে দেখছেন এবং আশ্বস্ত করেছেন। আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়ের মেধাবী শিক্ষার্থী ‘তিন্নি’ আপুকে পাশবিক নির্যাতনের মাধ্যমে হত্যার প্রতিবাদে এবং দ্রুত বিচারের দাবিতে জেলা প্রশাসক স্যারের কাছে আমরা স্মারকলিপি প্রদান করেছি। আমরা চাই অপরাধী শাস্তি পাক। অপেক্ষার অবসান হোক।’

প্রসঙ্গত, এর আগে তিন্নি হত্যাকান্ডে জড়িতদের সুষ্ঠু তদন্ত সাপেক্ষে সর্বোচ্চ শাস্তি দাবি জানিয়ে গত শুক্রবার (২ সেপ্টেম্বর) বিকেলে মানববন্ধন করে তার সহপাঠীরা। এছাড়া গত শনিবার (৩ সেপ্টেম্বর) বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকের সামনে মানববন্ধন করেছে বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ শিক্ষার্থীরা। একইসাথে বিচার না হলে কঠোর আন্দোলনের হুঁশিয়ারিও দিয়েছে তারা।

গত বৃহস্পতিবার (১ সেপ্টেম্বর) মধ্যরাতে তিন্নির শয়ন কক্ষ থেকে ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করে শৈলকূপা থানা পুলিশ। এ ঘটনায় শুক্রবার (২ সেপ্টেম্বর) রাতে নিহত তিন্নীর মা হালিমা বেগমের দায়ের করা মামলার প্রেক্ষিতে ৮ জন আসামীর মধ্যে ৪ জন গ্রেফতার হয়েছে। মামলার প্রধান আসামী জামিরুলসহ ৪ জন্য পতালক রয়েছে বলে পুলিশ সূত্রে জানা গেছে।