মায়ের সাথে অভিমান করে ইবি ছাত্রীর আত্মহত্যা

  • 03 Jan
  • 10:28 AM

আজাহার ইসলাম, ইবি প্রতিনিধি 03 Jan, 21

মায়ের সাথে অভিমান করে আত্মহত্যা করেছেন ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী ফাবিহা সুহা। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের ল’ এন্ড ল্যান্ড ম্যানেজমেন্ট বিভাগের ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী।

শনিবার সন্ধ্যায় ঝিনাইদহের আদর্শপাড়ায় ওই ছাত্রীর নিজ বাড়িতে গলায় দড়ি ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন বলে জানা গেছে।

পরে পরিবারের লোকজন তাঁকে উদ্ধার করে নিকটস্থ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন।

ওই ছাত্রীর প্রতিবেশি ও সহপাঠীরা জানায়, সুহার খালার বিবাহ বিচ্ছেদের পর থেকে তার খালাতো বোন সুহার বাড়িতেই থাকতো। বাড়িতে থাকা খালাতো বোনকে তার মা বেশি প্রাধান্য দিত বলে অভিযোগ সুহার। এনিয়ে মায়ের সাথে প্রতিনিয়ত কথা কাটাকাটি হত।

গতকাল শুক্রবার তার মা তাকে ও তার ছোট বোনকে বকাঝকা ও মারধর করেন। এতে তার বাবা-মায়ের মধ্যে কলহের সৃষ্টি হয়। আজ শনিবার বিকেলে সুহা ও তার ছোট বোন বাড়িতে রেখে সুহার বাবা-মা তার নানীর বাড়ি বেড়াতে যায়। বাড়িতে সুহা ও তার বোন একই কক্ষে ঘুমিয়ে ছিলেন। পরে ঘুম থেকে উঠে সন্ধ্যায় পাশের কক্ষে গিয়ে দড়ি দিয়ে গলায় ফাঁস দেয়।

ওই ছাত্রীর বাবা বাড়ি ফিরে দরজা বন্ধ দেখেন। পরে পরিবারের লোকজন দরজা ভেঙ্গে সুহাকে হাসপাতালে নিয়ে যায়। পারিবারিক কলহ ও মায়ের উপর অভিমান থেকে আত্মহত্যার ঘটনা ঘটেছে বলে ধারণা প্রতিবেশীদের। সুহার মা তাঁকে বকাঝকার বিষয়টি স্বীকার করেছেন বলে জানা গেছে। তবে এ থেকে আত্মহত্যা করতে পারে বিষয়টি ভাবেননি তিনি।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর প্রফেসর ড. জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন, ‘আমি বিষয়টি শুনেছি। এটা খুবই দুঃখজনক ঘটনা। বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া একজন শিক্ষার্থীর এমন মৃত্যু কোনোভাবেই কাম্য নয়। ঘটনাস্থলে বিভাগের শিক্ষকরা গিয়েছেন তাঁদের সাথে কথা বলেছি ও খোঁজ খবর রাখছি।’

উল্লেখ্য, সুহার জানাজা আগামীকাল বাদ জোহর বাড়ির সামনে থাকা ওয়াজের আলী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে অনুষ্ঠিত হবে বলে জানা গেছে।