আর্থিক ক্ষতিটা ভাগাভাগি করে নিতে বাড়িভাড়া অর্ধেক চান আব্দুল শাজিন চৌধুরী

  • 11 May
  • 06:56 AM

শোভন, বশেমুরবিপ্রবি প্রতিনিধি 11 May, 20

করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে প্রায় সকলেই কোনো না কোনোভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। বিশেষ করে নিম্ন এবং মধ্যবিত্ত পরিবারের আয়ের ক্ষেত্রে বড় ধরনের প্রভাব ফেলছে এই ভাইরাস। আর এই আর্থিক ক্ষতির কথা বিবেচনা করেই গোপালগঞ্জের চরঘাটা এলাকার আব্দুল শাহিন চৌধুরি বাড়িভাড়া অর্ধেক নেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

এ বিষয়ে তিনি বলেন, "মহামারীর প্রভাবে সমগ্র বিশ্বই স্থবির। আমাদের দেশের লোকজনও ভাইরাসটির কারণে আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। যেসকল শিক্ষার্থীরা টিউশন করিয়ে ব্যয় নির্বাহ করতো তাদের টিউশন বন্ধ আবার অনেকের পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের আয়ও কমে গিয়েছে। এমন অবস্থায় আর্থিক ক্ষতিটা ভাগাভাগি করে নিতেই করোনার সময়টাতে বাড়িভাড়া অর্ধেক নেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।"

এ বিষয়ে ঐ বাড়িতে বসবাসকারী বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বশেমুরবিপ্রবি) ৩য় বর্ষের শিক্ষার্থী কাজী সুরাইয়া বলেন, "আমাদের বাড়িওয়ালা কখনোই ভাড়া প্রদানের জন্য চাপ প্রয়োগ করেননি। করোনার সময়টায় নিজেদের এবং তার দিকের কথা বিবেচনা করে আমরা বাড়িভাড়া অর্ধেক মওকুফের জন্য অনুরোধ করি এবং তিনি আমাদের অনুরোধ রেখেছেন। তার এই সিদ্ধান্তে আমরা অনেক উপকৃত হয়েছি কারণ আমাদের এখন টিউশন বন্ধ আবার পরিবারের উপার্জনক্ষম ব্যক্তিরাও ঘরে বসে দিন কাটাচ্ছে।"

উল্লেখ্য, দীর্ঘদিন যাবৎ বাড়িভাড়া মওকুফের আবেদন করছেন বশেমুরবিপ্রবির শিক্ষার্থীরা। এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন একটি কমিটি গঠন করলেও এখনো বিষয়টির কোনো সমাধান হয়নি।