নারায়ণগঞ্জে আগুনে ৩৬ বসতঘর পুড়ে ছাই

  • 27 Nov
  • 09:37 AM

27 Nov, 20

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় আগুনে ৩৬টি টিনের তৈরি বসতঘর পুড়ে ছাই গেছে। বৃহস্পতিবার (২৬ নভেম্বর) রাত সাড়ে ১০টার দিকে ফতুল্লার উত্তর নরসিংপুর-মুসলিমনগর সীমাবর্তী এলাকায় গিয়াস উদ্দিনের ভাড়াটিয়া বাড়িতে এ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে।

অগ্নিকাণ্ডের খবর পেয়ে নারায়ণগঞ্জ ও বিসিক ফায়ার সার্ভিসের চারটি ইউনিট ঘটনাস্থলে পৌঁছে দুই ঘণ্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হলেও তার আগেই ৩৬টি ঘরসহ ঘরে থাকা আসবাবপত্র পুড়ে ছাই হয়ে যায়।
প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, রাত সাড়ে ১০টার দিকে মুসলিমনগর নয়াবাজার নয়াবাজার এলাকার গিয়াস উদ্দিনের টিনের তৈরি বাড়িতে আগুন লাগে। এ সময় ওই বাড়িতে বসবাসকারীদের চিৎকারে আশপাশের লোকজন আগুন নেভাতে ছুটে আসেন। দ্রুত চারদিকে আগুন ছড়িয়ে পড়ে। তারা বালু ও পানি দিয়ে আগুন নেভানোর চেষ্টা করেন।
কোনো রকমে ঘর থেকে বের হয়ে জীবন রক্ষা করেন অনেকে। ঘটনার এক ঘণ্টা পর ঘটনাস্থলে আসে ফায়ার সার্ভিস। রাস্তা সরু হওয়ায় ফায়ার সার্ভিসের কর্মীদের ঘটনাস্থলে আসতে সময় লাগে।

ওই বাড়ির ভাড়াটিয়া ধীজন্দ্র জানান, গিয়াস উদ্দিনের ভাড়াটিয়া বাড়িতে ৪৫টি ঘর। সেখানে ১৬টি হিন্দু পরিবার বসবাস করে। রাতে আগুন লাগার পর তারা জীবন বাঁচাতে ঘর থেকে বের হয়ে আসেন। আগুনে প্রায় ৩৬টি ঘর পুড়ে গেছে। ঘরে থাকা সব জিনিসপত্রও পুড়ে ছাই হয়ে গেছে।
নারায়ণগঞ্জ ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের উপ-পরিচালক আব্দুল্লাহ আল আরেফিন জানান, অগ্নিকাণ্ডের খবর পেয়ে দ্রুত ছুটে আসলেও রাস্তা একটু সরু থাকায় ঘটনাস্থলে পৌঁছাতে একটু সময় লেগে যায়। পরে ফায়ার সার্ভিসের তিনটি ইউনিট কাজ করে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। কীভাবে আগুন লেগেছে তা সঠিকভাবে বলা যাচ্ছে না। তবে বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিট কিংবা কয়েল বা অন্য কোনো দ্রব্য থেকে আগুন লাগতে পারে বলে ধারণা করছি।