অবশেষে মুখ খুললেন রবিবা'র দুজন অফিস সহকারী

  • 30 Sept
  • 09:57 PM

রবিবা প্রতিনিধি 30 Sept, 21

রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়, বাংলাদেশ (রবিবা)'র চলমান আন্দোলন এবং আমরন অনশনে শিক্ষার্থীরা এখনো দৃঢ় রয়েছেন। তাদের দাবি ফারহানা ইয়াসমিন বাতেনের স্থায়ী পদত্যাগ। চুল কাটার ঘটনা ফারহানা ইয়াসমিন বাতেন অস্বীকার করলেও আজ তার বিভাগের দুজন অফিস সহকারী মুখ খুলেছেন। তাদের মধ্যে সজিব সরকার নামে এক অফিস সহকারী বলেন, বাতেন ম্যাডাম আমাকে কেচি আনতে বললে আমি কেচি নিয়ে আসি। ম্যাম আমাদের সামনে নিজ হাতে চুল কেটে দেন। আরেক অফিস সহায়ক আব্দুল মালেক বলেন, হ্যা, ফারহানা ইয়াসমিন বাতেন ম্যাম নিজ হাতেই চুল কেটেছেন। আমি দেখেছি মোটামুটি ১৩-১৪ জনের চুল কেটেছে। এ ছাড়াও বিষয়টি সিসি ফুটেজেও উঠে এসেছে। ফুটেজে দেখা যায় ফারহানা ইয়াসমিন বাতেন কাচি নিয়ে এদিক সেদিক ঘুরছেন।

গত ২৭শে সেপ্টেম্বর প্রশাসনিক ভবনে শিক্ষার্থীরা তালা লাগিয়ে দিয়েছিল। আজ জানা গেছে কয়েকজন অফিস সহকারী এবং শিক্ষক একত্রে সেই তালা ভেঙে ভিতরে প্রবেশ করে। শিক্ষার্থীরা খবরটি জানার পর একটি ঝটিকা মিছিল নিয়ে অস্থায়ী ক্যাম্পাস, বিসিক বাসস্ট্যান্ড থেকে কান্দাপাড়া প্রশাসনিক ভবনে যায় এবং আবার তালা লাগিয়ে দেয়। পাশাপাশি তারা প্রশাসনিক ভবনের সামনে আন্দোলনরত আছেন।

সর্বশেষ সন্ধ্যায় সিন্ডিকেট এর বিশেষ মিটিং হবে বলে জানানো হয়েছে।