‘অনলাইন ক্লাস’

  • 18 Sept
  • 09:10 AM

মোঃ হামিদুর রহমান, এসোসিয়েট প্রফেসর (বাউয়েট) 18 Sept, 20

করোনার কারণে এবং সরকারী নির্দেশনা থাকায় অধিকাংশ স্কুল-কলেজে এখন অনলাইনে ক্লাশ হচ্ছে। সম্মানীত শিক্ষকমণ্ডলী কখনও লাইভ-এ ক্লাশ নিচ্ছেন, আবার কখনও রেকর্ডিং করে অনলাইনে ছাড়ছেন।
এটা সত্যি একটা কঠিন কাজ। যেসব শিক্ষক স্মার্টফোন নিজে ব্যবহার করা তো দূরের কথা, শিক্ষার্থীদের ব্যবহার করতে দিতে নারাজ ছিলেন, তাঁরা আজ স্মার্টফোনের সামনে দাঁড়িয়ে পৃথিবীর সামনে ক্লাশ নিচ্ছেন। হ্যাঁ, অনলাইনে ক্লাস নেয়া মানে, পুরো পৃথিবীর সামনে দাঁড়িয়ে ক্লাস নেয়। এখানে শিক্ষার্থীসংখ্যা নির্দিষ্ট নয়, এখানে কোন দেয়াল নেই। আর এজন্য যে একজন শিক্ষককে অনেক রকম মানসিক প্রস্তুতির ভিতর দিয়ে যেতে হয়।
অনলাইন ক্লাসের প্রচুর ভিডিও পাওয়া যাচ্ছে ফেসবুকে, ইউটিউবে। একটা বিষয় খেয়াল করেছি- অনলাইন ক্লাসে শিক্ষকের সামনে যেমন পুরো দুনিয়া, তেমনি আমি অসংখ্য শিক্ষকের ছাত্র। আমি ছাত্র হয়ে শিখছি যেমন, তেমনি কলিগ হিসেবে নিজের ত্রুটিগুলোকেও তাঁদের মাধ্যমে দেখা ও প্রয়োজনানুযায়ী শোধরানোর সুযোগ পাচ্ছি।
চারদেয়ালের ক্লাসের অনেক সুবিধা। সেই সুবিধাগুলো স্বাভাবিকভাবেই অনলাইনে অসুবিধা হিসেবে পরিগণিত হতে পারে:
১. আমার ক্লাস শুধু আমার ছাত্ররাই দেখছে না, তাদের অভিভাবকরাও দেখছেন। তাঁরা জেনে যাচ্ছেন, আমার সন্তান যাঁদের কাছে পড়ে, তাঁরা কীভাবে ক্লাস নিতেন, কতটুকু শুদ্ধতায় ক্লাস নিতেন।
২. আমার অনলাইন ক্লাসের দর্শকসারিতে কেবল শিক্ষার্থীরাই বসে না- শিক্ষক, ডাক্তার, উকিল, তাঁতী, কামার, কৃষক, প্রকৌশলী... ইত্যাদি নানান ধরনের অভিভাবক ও/অথবা আগ্রহী ব্যক্তিও বসেন- এটাই সত্য। অনলাইন ক্লাসে একজন শিক্ষককে এইসব কিছু মাথায় রাখতে হয় বলে চ্যালেঞ্জটা বেশ শক্ত হয়ে ওঠে।
৩. আমার কথা বলার ধরন, ক্লাসে নড়াচড়া, বোর্ডের সামনে দাঁড়ানো, সেখানে লেখা, লেখাগুলো মোছা, আমার উচ্চারণ, ভার্চুয়াল শিক্ষার্থীকে একটা বিষয় বোঝার জন্য তাকে সময় দেয়া- ইত্যাদি বিষয়গুলো খেয়াল করার প্রয়োজন পড়ে।
৪. পরিচ্ছন্ন ও পরিপাটি পোশাক-পরিচ্ছদ এবং পরিচ্ছন্ন মুখাবয়ব আমার ব্যক্তিত্ব ও রুচি সম্পর্কে ধারণা বহন করে।
৫. ক্যামেরার চোখই যে শিক্ষার্থীর চোখ, সেটা ভাবতেই হবে। সেজন্য এদিক ওদিক না তাকিয়ে কথা বলার সময় বরং ক্যামেরাকেই ছাত্র ভাবব- আইকন্ট্যাক্ট অনেকটাই সম্ভব হবে।
৬. যতই চেষ্টা করি না কেন, সামনে বই বা কোন উপকরণ রেখে এবং তা/সেসব থেকে দেখে দেখে ক্লাস নিলে তা খুব সহজেই ক্যামেরায় ধরা পড়ে। আমি এই কাজ থেকে নিশ্চয়ই দূরে থাকব। কেউ কেউ বোর্ডে আগে থেকেই পয়েন্টগুলো লিখে রাখি। সেটা বরং বই দেখে পড়ানোর চাইতে ভাল। মাল্টিমিডিয়ায় ক্লাস নিলেও সমস্যাটা অনেকাংশে এড়ানো যায়।
৭. বাংলা বা ইংরেজি- যে মাধ্যমেই ক্লাস নিই না কেন, ভাষার শুদ্ধতা আমাকে বজায় রাখতেই হবে। আঞ্চলিক উচ্চারণ যতটা সম্ভব এড়িয়ে যাই।
৮. রেকডিং করার পর যদি অনলাইনে ছাড়ি, তবে এডিট করার সুযোগ থাকে। পুরো ভিডিও এডিট করে শব্দ ও ছবিকে আরও পরিচ্ছন্ন করা যায়।
৯. আমাকে বিশ্বাস করতেই হবে: আমি এক বিশাল শিক্ষকসমাজের প্রতিনিধি- আমার মাধ্যমে যেন সেই সমাজের সম্মান ক্ষুণ্ন না হয়।



লেখকঃ মোঃ হামিদুর রহমান।
এসোসিয়েট প্রফেসর এবং বিভাগীয় প্রধান, ইংরেজি বিভাগ।
বাংলাদেশ আর্মি ইউনিভার্সিটি অব ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড টেকনোলজি (বাউয়েট)