• 14 Oct
  • 07:44 PM
ইংরেজিকে জয় করার মন্ত্র

নিজস্ব প্রতিনিধি 14 Oct, 19

ইংরেজি বিষয়টি আমরা সেই ছোটবেলা থেকে পড়লেও ইংরেজিতে আমাদের অনেকেরই সমস্যা থেকে যায়। যেমন গ্রামারের সমস্যা, পড়ে বোঝার সমস্যা, কথা বলার সমস্যা আবার অনেকের শুনে বোঝার সমস্যাও রয়েছে।


যে কোনো ভাষার চারটি মূল স্তম্ভ রয়েছে এবং ইংরেজি ভাষাও তার ব্যতিক্রম নয়।
ইংরেজিতে ভালো করতে হলে আমাদের listening, speaking, reading এবং writing এই চারটি বিষয়ের উপর সমান গুরুত্ব দিতে হবে।


প্রথমেই ইংরেজি ভাষার একটি ভালো ভিত্তি গড়ার জন্য আমাদের ভালো জ্ঞান রাখতে হবে গ্রামার এবং ভোকাবুলারির ।ইংরেজি গ্রামারের জন্য Analytical English Grammar by S.M. Zakir Hussain বইটি দেখতে পারেন।

আর ভোকাবুলারির জন্য দেখতে পারেন Vocabulary Plus by S.M. Zakir Hussain।অনেকে আবার গ্রামার এবং ভোকাবুলারি কিছুটা পারলেও ইংরেজিতে বাক্য তৈরী করতে করে হিমশিম খান। তারা A Dictionary of English Structures by S.M. Zakir Hussain বইটি দেখতে পারেন।

প্রথমেই আসি listening এর কথায়। Listening এর জন্য অনেকেই অনেক কিছু বলে থাকেন।আমি বলবো Listening এর জন্য প্রথমে দেশি খবরগুলোর ইংলিশ ভার্সন শুনতে পারেন। এই ক্ষেত্রে বিটিভি এর ইংলিশ সংবাদ সবচেয়ে ভালো আজও।
আপনি আস্তে আস্তে যদি বিটিভি (BTV) এর খবরগুলো বুঝতে পারেন, তারপর আপনি বিবিসি (BBC) এর ইংলিশ ভার্সন শোনার প্রাকটিস করবেন। বিবিসির পর থেকে থেকে ইংরেজি মুভির ডায়লগগুলো এবং গানের লিরিকগুলো বোঝার চেষ্টা করবেন।

তারপর আসে speaking এর বিষয়টি। Listening এর সাথে সাথে speaking এরও অনুশীলন করতে হবে। এই ক্ষেত্রে আপনি চাইলে আপনার কোনো ফ্রেন্ড কিংবা পার্টনার কিংবা যে কারো সাথে প্রতিদিন অন্তত ১ ঘন্টা যে কোনো কিছু নিয়ে ইংলিশে কথা বলার চেষ্টা করতে পারেন।
আর নিতান্ত পক্ষে কাউকে না পেলে বাসায় আয়নার সামনে দাঁড়িয়ে কথা বলার অনুশীলন করুন। দেখবেন জড়তা অনেকটাই কমে গিয়েছে।

হা, ভুল হবেই এটাই স্বাভাবিক। মানুষ ভুল করে - এটা মানুষ হিসেবে সবার জন্য সত্য। কিন্তু মানুষ আবার এই ভুল থেকেই শিখে -তাও সত্য। তাই, আস্তে আস্তে চেষ্টা করুন, আলো আসবেই।ইংলিশ একটি আন্তর্জার্তিক ভাষা। তাই আপনি ব্রিটিশ না মার্কিন উচ্চারণ করছেন সেটা ব্যাপার না, আপনি ঠিক করে বলতে পারাটাই হচ্ছে বড় ব্যাপার।

Speaking এর জন্য Fluency Formulas in Englush by S.M. Zakir Hussain বইটি দেখতে পারেন।
Reading এর জন্য আপনি অনলাইন থেকে দেশের যে কোনো দৈনিক ইংলিশ পত্রিকা পড়তে পারেন।ইংলিশ পত্রিকা পড়ার পর, ডিকশেনারী দেখে অজানা শব্দের অর্থ খুঁজে বের করুন এবং নোটস করে রাখুন।
তারপর সবশেষে আসে writing এর পালা। লিখতে গেলে আমাদের সবারই অনেক চিন্তা আসে।কিন্তু আমি বলবো চিন্তা না করে যাই মনে আসে তাকে ইংলিশে লিখে ফেলবেন। ভুল হবেই।

এই ভুলটাকে জানার জন্য আপনাকে একজন মেন্টর ঠিক করতে হবে। যার কাজ হবে, আপনার লিখাগুলোর কারেকশন করে দেয়া। তাহলেই আপনি শিখতে পারবেন।
আসলে যেকোনো ভাষায় ভালো করার জন্য প্র্যাক্টিসের কোনো বিকল্প নেই। তাই সময় দিতে হবে, অনুশীলন করতে হবে। আপনি যত বেশি প্রাকটিস করবেন, আপনার ভাষাগত দক্ষতা ততই বাড়বে।পরিশেষে, এইটাই বলবো নিজের উপর বিশ্বাস রেখে চেষ্টা করুন, সময় লাগবে, মাঝে মাঝে খারাপও লাগবে কিন্তু সাফল্য একদিন আসবেই।ভালো থাকুন, নিরাপদে থাকুন।
আর অন্যায়কে সর্বদা না বলুন। একে অন্যের সাহায্য করুন।

নূর-আল-আহাদ
বিবিএ (ইউনিভার্সিটি অফ ঢাকা)
এমবিএ (ইউনিভার্সিটি পুত্রা মালয়েশিয়া)
ফিনান্সিয়াল ইঞ্জিনিয়ারিং গবেষক (জাপান)
(Acquiring knowledge does not have a full-stop, rather it always has comma - Ahad)