• 11 Sept
  • 03:19 PM
বিএসইসি কর্মচারীর দামি গাড়ি, বিলাসবহুল ফ্ল্যাট

নিজস্ব প্রতিবেদক 11 Sept, 19

বাংলাদেশ ইস্পাত ও প্রকৌশল করপোরেশনের (বিএসইসি) পদে চাকরি করেন সিরাজুল ইসলাম। চতুর্থশ্রেণির এ কর্মচারী চড়েন সরকারী দামি গাড়িতে। ঢাকা শহরে কিনেছেন কোটি টাকা মূল্যের ফ্লাট। এছাড়া গ্রামের বাড়িতেও তৈরি করেছেন আলিশান বাড়ি। সিরাজুল ইসলামের ব্যাংক হিসাবে রয়েছে কয়েক কোটি টাকা।

দুর্নীতি দমন কমিশন সূত্রে জানা গেছে, সিরাজুল ইসলামের অবৈধ সম্পদ অর্জনের বিরুদ্ধে কমিশনের অনুমোদন নিয়ে শিগগিরই অনুসন্ধান শুরু করা হবে।

জানা গেছে, সিরাজুল ইসলাম ব্যবহার করেন সরকারি নিশান গাড়ি। এ গাড়ির তেল ও রক্ষণাবেক্ষণের খরচ রাষ্ট্রীয় কোষাগার থেকে নেন তিনি।

রোববার গাড়ি ব্যবহারের ঘটনার সত্যতা যাচাই করতে বিএসইসিতে অভিযান চালায় দুদক। অভিযানে সিরাজুল ইসলাম নিশান গাড়িটি (ঢাকা মেট্রো খ-১২-০৭৫৭) ২০০৯ সাল থেকে অবৈধভাবে ব্যবহার করে আসছেন বলে জানতে পারে দুদক।

দুদক টিম পরিবহন পুলের এক কর্মকর্তার কক্ষে গাড়িটির তিনটি আসল এবং তিনটি ডুপ্লিকেট করা লগ বই উদ্ধার করে। এগুলো উদ্ধার করে ছয়টি লগ বই এবং গাড়ির চাবি করপোরেশনের সচিবের কাছে জমা দেয় দুদক। এছাড়া বিষয়টি গভীরভাবে অনুসন্ধানের স্বার্থে সংশ্লিষ্ট নথিপত্রের সত্যায়িত কপি সংগ্রহ করে দুদক।

এদিকে সিরাজুল ইসলামের বিরুদ্ধে অবৈধ‌ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে বিষয়ে দুদকের কাছে আসা অভিযোগ পত্রে বলা হয়েছে, কর্মচারির চাকরি করে রাজধানীর মিরপুর ১০ নম্বরে তিনি একটি অত্যাধুনিক ফ্ল্যাট কিনে বসবাস করছেন। যার নম্বর হলো বাসা নং-০৭, তৃতীয় তলা, রোড নং-১০, ব্লক-সি।

এছাড়া কোটি টাকার ফ্ল্যাট কেনার পাশাপাশি গ্রামের বাড়িতে আলিশান বাড়ি ও কয়েকটি ব্যাংক হিসাবে জমা রয়েছে কয়েক কোটি টাকা বলেও উল্লেখ করেছেন।

জানা গেছে, সিরাজুল ইসলাম ১৯৭৮ সালে টাইপিস্ট হিসেবে চাকুরি শুরু করেন। বর্তমানে বিএসইসি’র কমন সার্ভিসের হেড অ্যাসিসটেন্ট পদে কর্মরত।