• 16 Nov
  • 06:26 PM
জবির নতুন ক্যাম্পাসের ভূমি অধিগ্রহনে ক্ষতিগ্রস্তদের চেক হস্তান্তর

জবি প্রতিনিধি 16 Nov, 19

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের(জবি) নতুন ক্যাম্পাসের ১৮৮ একর ভূমি অধিগ্রহনে ক্ষতিগ্রস্ত ব্যাক্তিদের মধ্যে ক্ষতিপূরনের চেক হস্তান্তর করা হয়েছে।
শনিবার(১৬নভেম্বর) দুপুরে দক্ষিন কেরানীগঞ্জর তেঘরিয়ায় ভূমি অধিগ্রহনে ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে চেক বিতরন করা হয়।

এ সময় প্রধান অতিথির বক্তব্যে বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বিপু বলেন, কেরানীগঞ্জে শিক্ষার আলো ছড়াতে সাহায্য করবে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়। সর্বাধুনিক বিশ্ববিদ্যালয় হবে শুধু দেশে না সারাবিশ্বে এর নাম ছড়িয়ে পরবে।
চেক হস্তান্তর বিষয়ে তিনি বলেন, অনেক টাকা দেওয়ার সময় দালাল চক্র তৈরি হয়। এমন কারো নামে কোন অভিযোগ আসলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। কাউকে কোনভাবে বিব্রত করা যাবেনা।

এ সময় জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মীজানুর রমান বলেন, এই জমি পেয়ে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় যেভাবে লাভবান হয়েছে, এখানকার এলাকাবাসীও লাভবান হয়েছে। ব্যাবসা বানিজ্য এবং আবাসনে বেনেফিট পাবেন। কেরানীগঞ্জের মানুষ কোন আন্দোলন ছাড়াই পূর্নাঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয় পেয়েছেন। এখানে আজীবন জ্ঞানের অনুশীলন, অনুসন্ধান ও গবেষনা হবে। তিনি ক্ষতিগ্রস্থদের কোন ধরনের হয়রানী ছাড়া বিনিময় মূল্য নিশ্চিত করার জন্য জেলা প্রশাসককে দৃষ্টি আকর্ষন করেন। এ সময় উপাচার্য আগামী মাসের মধ্যে দ্রুত চেক হস্তান্তর সম্পন্ন করে জেলা প্রশাসক এই জায়গাটা নকশা অনুযায়ী বুঝিয়ে দেওয়ার আহ্বান করেন।

ঢাকা জেলা প্রশাসনের আয়োজনে এবং জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের সহযোগিতায় চেক হস্তান্তর অনুষ্ঠানে কেরানীগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শাহীন আহমেদ, জেলা প্রশাসক আবু ছালেহ মোহাম্মদ ফেরদৌস খানসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, স্থানীয় নেতৃবৃন্দ ও এলাকাবাসি উপস্থিত ছিলেন।