• 02 June
  • 01:22 PM
বর্তমান ছাত্রলীগের উদ্দেশ্যে বেরোবির সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদকের খোলা চিঠি

ভার্সিটিভয়েস ডেস্ক 02 June, 19





সম্মানীত এবং প্রিয় বর্তমান ছাত্রলীগের ভাই ও বোনেরা....

আপনাদের উদ্দেশ্যে অধমের বৃথা আস্ফালন এই যে, ইতিহাস সচেতন হোন এবং শব্দচয়নে আরো সাবধানী হোন।

এমন কেউ কেউ ছিল যারা বঙ্গবন্ধুর প্রতি প্রচন্ডের অতিরিক্ত ভালবাসা এবং শ্রদ্ধা প্রকাশ করত।
অতঃপর তারাই ৭৫ এর পরবর্তী সময়ে জিয়াউর রহমানের প্রতি আস্থা ও বিশ্বাস রেখেছিল।

প্রতিটা যুগেই এমন hypocrites থাকে। ওরা কাউকে ভালবাসেও না, কাউকে শ্রদ্ধাও করে না। উনারা শুধু ক্ষমতার পূজারী মাত্র। ক্ষমতায় যিনি বসলেন, ধান্দাবাজরা তার পক্ষেই নন্দিত ধ্বনি উচ্চারণ করে যাবে।

জননেত্রী শেখ হাসিনা নিশ্চয় এবং নিশ্চয় সর্বকালের শ্রেষ্ঠ প্রধানমন্ত্রী আপাতদৃষ্টিতে।

কিন্তু কখনোই বঙ্গবন্ধুর সাথে কখনোই তুলনা করা যায় না।
ইতিহাসে কিছু মহান ব্যাক্তিকে কিছু ব্যাপারে স্বত্তাধিকার দিয়ে গেছে।
যেমন বাংলাদেশ ছাত্রলীগ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানের হাতে গড়া, বঙ্গবন্ধুর হাতে গড়া, বঙ্গবন্ধুর আদর্শ নিয়ে উজ্জীবিত।

আহমদ ছফা বলেছিলেন " বঙ্গবন্ধু এবং বাংলাদেশ দুটো জমজ শব্দ”।

তাই অতি উৎসাহী কিংবা জননেত্রী ভক্তিতে ব্যাস্ত কিছু সম্মানীয় এবং প্রতিষ্ঠিত ছাত্রলীগ নেতারা যখন শেখ হাসিনার ছাত্রলীগ বলেন তখন আমার মত ক্ষুদ্র ছাত্রলীগ কর্মীরা আহত হয়।

গত কয়েকদিন ধরে দায়িত্বশীল ছাত্রলীগ নেতারা ফেসবুকে সগৌরবে লিখে যাচ্ছেন
" জননেত্রী শেখ হাসিনা মানেই বাংলাদেশ। "

জানিনা উনারা
বঙ্গবন্ধু বনাম দেশরত্ন
তুলনা করে বলছেন কি না?

এভাবে বঙ্গবন্ধুকে ছোট করবেন না। আগামী প্রজন্মকে আপনারা বিভ্রান্ত করবেন না দয়া করে। যারা কেবল ছাত্ররাজনীতিতে আগ্রহী হয়ে উঠছে তারা শুরুতেই শিখছে...

শেখ হাসিনার ছাত্রলীগ
আর
শেখ হাসিনা মানেই বাংলাদেশ।

জানি অনেকেই এই স্ট্যাটাস দেখে ক্ষোভ প্রকাশ করবেন,
তবু বলি দয়া করে কিঞ্চিত লভ্যাংশ প্রাপ্তির আশায় কিংবা শুধু চামচামী করার উদ্দেশ্যে ইতিহাস বিকৃতি করবেন না।

ইতি,
মাহমুদ-উল-ইসলাম জয়
বঙ্গবন্ধুর ছাত্রলীগ
সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক
বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়।